এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > করোনা আবহে অনেকেরই পারফরম্যান্স তলানীতে! পিকের কোপে পড়তে চলেছেন একাধিক হেভিওয়েট তৃণমূলী?

করোনা আবহে অনেকেরই পারফরম্যান্স তলানীতে! পিকের কোপে পড়তে চলেছেন একাধিক হেভিওয়েট তৃণমূলী?



লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময়কালে তৃনমূলের দায়িত্ব নিয়ে রাজ্যের শাসক দলকে শক্তিশালী করার কাজ শুরু করেছিলেন বিশিষ্ট নির্বাচনী রণনীতিকার প্রশান্ত কিশোর। লোকসভায় তৃণমূলের হেরে যাওয়ার কারণ হিসেবে উঠে এসেছিল দলীয় নেতাদের দুর্নীতি এবং সাধারণ মানুষের সঙ্গে সুসম্পর্কের অভাবের অভিযোগ। ফলে দায়িত্ব নিয়েই প্রশান্ত কিশোর মানুষের সাথে তৃণমূলের জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে নেতা-কর্মীদের আরও ভালোভাবে মেশার নির্দেশ দেন।

আর মানুষের সঙ্গে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা কেমন ভাবে জনসংযোগ রক্ষা করছে, তার জন্য সবসময় তৃণমূলের প্রতিটি নেতা-নেত্রীদের ওপর নজর রাখা হয়। এক্ষেত্রে যারা ঠিক মত কাজ করছেন না, তাদের অনেক সময় সতর্ক করে দিতেও দেখা গেছে সেই প্রশান্ত কিশোরকে। অথবা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বকে গোটা বিষয়টি জানিয়ে সেই সমস্ত নেতা-নেত্রীদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

আর করোনা মহামারীর সময় যখন মানুষের পাশে থাকা দরকার, ঠিক সেইসময় তৃণমূলের কোন কোন নেতা-নেত্রী সঠিক ভূমিকা পালন করেননি, তা নিয়েও এবার নিজের মতামত জানিয়ে দিলেন প্রশান্ত কিশোর। এক্ষেত্রে বেশ কিছু নেতা নেত্রীরা যে সঠিক ভাবে মানুষের পাশে থাকেননি এবং জনসংযোগ রক্ষা করেননি, তার ব্যাপারে উষ্মা প্রকাশ করেছেন তিনি। অর্থাৎ প্রশান্ত কিশোরের এই মন্তব্য থেকে স্পষ্ট যে, করোন আবহের মধ্যে তার টিম রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় ঘুরে তৃণমূল নেতাদের পদক্ষেপের প্রতি নজর রেখেছেন।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, রবিবার তৃণমূলের সমস্ত জেলা সভাপতিদের নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মধ্যে দিয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আর সেখানেই এই ব্যাপারে সকলকে সচেতন করে দেন প্রশান্ত কিশোর। বিরোধীদের অপপ্রচারের মোকাবিলা করা সহ মানুষের পাশে থাকার জন্য সকলকে নির্দেশ দেন তিনি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ইতিমধ্যেই বিরোধীদের তরফে রেশনে দুর্নীতি সহ তথ্য চাপানো ইত্যাদি বিষয়ে শাসকদলের বিরুদ্ধে সরব হওয়ার ঘটনা দেখা গেছে।

যা নিঃসন্দেহে তৃণমূলকে কিছুটা হলেও চাপে রেখেছে। তাই এমত পরিস্থিতিতে বিরোধীদের সেই বক্তব্য যাতে শাসক শিবিরকে গ্রাস করতে না পারে, তার জন্য দলের জেলা নেতাদের পাল্টা ময়দানে নামার নির্দেশ দিচ্ছে তৃনমূল কংগ্রেস। ফলে এই পরিস্থিতিতে বেশ কিছু নেতা নেত্রী যে করোন পরিস্থিতির মধ্যে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেননি, তার ব্যাপারে ভিডিও কনফারেন্সের মধ্যে থেকেই বার্তা দিয়ে দিলেন প্রশান্ত কিশোর।

অনেকে বলছেন, প্রশান্ত কিশোরের এই বার্তার মধ্যেই লুকিয়ে আছে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি। কেননা তার টিমের নজরে যে সমস্ত নেতা-নেত্রী পড়েছেন, যারা কাজ করেননি বলে তিনি মনে করেছেন, তাদের ভবিষ্যতে ডানা ছাটা হতে পারে। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, করোনা আবহে কাজ না করার দিক থেকে প্রশান্ত কিশোরের টিমের নজরে কারা কারা থাকেন, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!