এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মমতা ব্যানার্জিই কি প্রথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন? জল্পনা বাড়ালেন প্রণব মুখার্জি

মমতা ব্যানার্জিই কি প্রথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন? জল্পনা বাড়ালেন প্রণব মুখার্জি



প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। ভারতবর্ষের প্রথম নাগরিক, তিনি কিনা বাঙালি –
এই গর্বে গর্বিত বাঙালি। তবে আজও প্রধানমন্ত্রী পদে কোনও বাঙালি বসেননি, সেই আক্ষেপ শোনা গেল প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির বক্তব্যেও। তিনি চান কোনো বাঙালি প্রধানমন্ত্রী পদে বসুন। সোমবার হাওড়ার আমতার একটি স্কুলের অনুষ্ঠানে তাঁর ইচ্ছা ব্যক্ত করেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। তাৎপর্যপূর্ণভাবে এ কথা বলার পরেই তিনি রাজ্যের প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজকর্মের ভূয়সী প্রশংসা করতে থাকেন। ফলে জল্পনা প্রবল হয় তাহলে কি প্রণববাবু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে আগ্রহী?
জাতীয় রাজনীতিতে বিরোধী নেত্রী হিসেবে ইতিমধ্যেই সক্রিয় হয়েছেন তৃনমূল নেত্রী। সোনিয়া গান্ধীর পর বিজেপিবিরোধী আন্দোলনের প্রধান মুখ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। রাহুল গান্ধীর কংগ্রেস সভাপতি হওয়া ও গুজরাত নির্বাচনে কংগ্রেসের অগ্রগতিতে বিজেপি-বিরোধী জোট গঠনের ক্ষেত্রে নতুন সমীকরণ তৈরি করতে পারে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা। তবে পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট না গড়ে এক লড়ার যে ইঙ্গিত তৃনমূল নেত্রী দিয়ে রেখেছেন তাতে এ রাজ্যের ৪২টি লোকসভা আসনের সিংহভাগ জিতে জাতীয় রাজনীতিতে নিজের ‘ওজন’ প্রতিষ্ঠা করাই তাঁর লক্ষ্য বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের ধারণা। তবে কি সেই ইঙ্গিতই দিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি?
এদিন তিনি আমতার তাজপুরে এম এন রায় ইনস্টিটিউশনের অনুষ্ঠানে এসেছিলেন। এই স্কুলেই তিনি শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। বক্তৃতায় তিনি বলেন, আমি রাষ্ট্রপতি হয়েছি ঠিকই, কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনও বাঙালি প্রধানমন্ত্রী আমরা পাইনি। বাঙালিদের জন্য এই পদটি খালি আছে। এর তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে পরেই তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কি সুন্দর রাজ্য চালাচ্ছেন। নিজের দলকে শক্তিশালী করছেন, নিজের মত করে উন্নয়ন করছেন। তিনি ছাত্রদের উদ্দেশ্য বলেন, এই স্কুলের একজন শিক্ষক পরবর্তীকালে রাষ্ট্রপতি হয়েছেন বলে এমন ধারণা করা ঠিক হবে না যে এই স্কুলের শিক্ষক বলেই আমি রাষ্ট্রপতি হতে পেরেছি। কিন্তু ছাত্র-ছাত্রীদের একটা কথা বলতে পারি, সম্ভাবনা সবার মধ্যেই আছে। তার সদ্ব্যবহার করে এই স্কুলের কোনও ছাত্র কেন প্রধানমন্ত্রী হতে পারবে না! উল্লেখ্য এই স্কুল থেকেই তিনি তার কর্মজীবন শুরু করেন শিক্ষক হিসেবে। খুব বেশি দিন এই স্কুলে চাকরি না করলেও, প্রথম চাকরির কথা তিনি ভুলতে পারেন নি। এরপর বহু বিদ্যালয় ও কলেজে শিক্ষকতা করেছেন তিনি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!