এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > অধীরের বিজেপি-যাত্রা নিয়ে জল্পনা উস্কে দিলেন বর্তমান সাংসদ

অধীরের বিজেপি-যাত্রা নিয়ে জল্পনা উস্কে দিলেন বর্তমান সাংসদ



রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী তথা তৃণমূলের দাপুটে নেতা শুভেন্দু অধিকারী প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর বিজেপিতে যাওয়া একেবারে ‘কনফার্ম’ করে দিয়েছিলেন আগেই।আর এবার তা প্রকারন্তরে ‘সমর্থন’ করলেন সিপিএমের রায়গঞ্জের সাংসদ মহম্মদ সেলিম।কলকাতার একটি ওয়েব পোর্টালের খবর অনুযায়ী সবংয়ের উপনির্বাচনে জোট ভাঙ্গার জেরে এবার কংগ্রেস-বামফ্রন্ট দুই পক্ষই বাকযুদ্ধে নেমেছেন। অধীরবাবু কার্যত চেয়েছিলেন যে জোট হোক ভোট-ভাগ রুখতেই তিনি জোট অটুট রাখার পক্ষপাতী ছিলেন তিনি এই নিয়ে বলেন, এই কেন্দ্রটি দীর্ঘদিন ধরে কংগ্রেসের দখলে। বিগত নির্বাচনেও এই কেন্দ্রে বামফ্রন্ট ও কংগ্রেস জোট গড়ে লড়াই করেছিল। কিন্তু উপনির্বাচনের সময় সিপিএম একতরফা ভাবে তাদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে দেয় এমনকি এই ব্যাপারে কোনোরকম আলোচনাও করেনি বলে অভিযোগ করেছেন অধীরবাবু। যা নিয়ে একেবারেই খুশি নন অধীরবাবু এবং তা বুঝিয়ে দিয়েছেন তাঁর পরের মন্তব্যে, সিপিএম বিশ্বাসঘাতকের মতো আচরণ করছে।
আর এরপরেই অধীর চৌধুরীকে একহাত নিয়ে মহম্মদ সেলিম বলেন, যিনি একথা বলেন, তিনি দুদিন বাদে কোন দলে থাকবেন, তা ঠিক নেই। তাঁর রাজনৈতিক বিশ্বাসযোগ্যতাই প্রশ্নের মুখে। তার মুখে বিশ্বাসঘাতকতার কথা মানায় না। আর তাতেই শুভেন্দু অধিকারীর কথায় যে জল্পনা শুরু হয়েছিল তাতে যেন ঘি পড়লো বলে ধারণা রাজনৈতিক মহল। প্রসঙ্গত শুভেন্দুবাবু বলেছিলেন, মুকুল রায়ের পর বিজেপিতে পা বাড়িয়ে রয়েছেন অধীর চৌধুরী। তাঁর বিজেপিতে যাওয়া স্রেফ সময়ের অপেক্ষা। অধীর বাবু বিজেপিতে যাচ্ছেন কি যাচ্ছেন না তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা ছিলই এবার আরো বেশি করে তাতে ঘি পড়লো রায়গঞ্জের সিপিএম সাংসদের মন্তব্যের পরে। যদিও এই খবর সম্পূর্ণ ওই ওয়েব পোর্টালের খবরের ভিত্তিতে করা এবং প্রিয়বন্ধু বাংলার পক্ষে এই খবরের সত্যতা যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এমনকি এর কোনো মতামতই প্রিয়বন্ধু বাংলার নিজস্ব নয়। এই প্রবন্ধ কোনো মতেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!