এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > শুভেন্দুর খাসতালুকে তৃণমূলের প্রচারের দায়িত্বটা নিজের কাঁধেই নিয়ে নিলেন অভিষেক? বাড়ল জল্পনা

শুভেন্দুর খাসতালুকে তৃণমূলের প্রচারের দায়িত্বটা নিজের কাঁধেই নিয়ে নিলেন অভিষেক? বাড়ল জল্পনা



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – জঙ্গলমহলের সংগঠন দেখার দায়িত্ব ছিল তাঁর ওপর। এমনকি ধীরে ধীরে সংগঠনকে সাজিয়ে এই জঙ্গলমহলে দলকে শক্তিশালী করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু সেই শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে এখন তৃণমূল নেতৃত্বের দূরত্ব ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে সেই শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা যখন বাড়ছে, ঠিক তখনই সেই জঙ্গলমহলে “দুয়ারে দুয়ারে সরকার” কর্মসূচির প্রচার কিভাবে হবে, সেই ব্যাপারে যুব নেতৃত্বের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করলেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

যেখানে জঙ্গলমহলে শুভেন্দু অধিকারীর যে অভাব তৈরি হয়েছে, তা মেটাতেই কি এবার পদক্ষেপ গ্রহণ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, এখন তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা। জানা গেছে, এদিনের এই বৈঠক থেকে একমাস যুব তৃণমুলের নেতাকর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে সরকারি দশটি প্রকল্পের সুযোগ নিতে এলাকাবাসীকে শিবিরে যাওয়ার অনুরোধ করবেন বলে জানানো হয়েছে। পাশাপাশি যুব কংগ্রেসের নেতা এবং কর্মীরা কেমন প্রচার করছেন, তা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের দপ্তরে পাঠানোর কথা বলা হয়েছে।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্য যুব তৃনমূলের সহ-সভাপতি দেবনাথ হাঁসদা বলেন, “অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে শুক্রবার থেকে জেলার আটটি ব্লক এবং ঝাড়গ্রাম শহরে বাড়ি বাড়ি প্রচার হবে। কেউ কেউ বৃহস্পতিবার থেকেই প্রচার শুরু করে দিয়েছেন।” এদিকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দেওয়া মাত্রই এদিন ঝাড়গ্রাম শহর যুব তৃনমূলের সহ-সভাপতি উজ্জ্বল পাত্র কর্মীদের নিয়ে এলাকায় প্রচার শুরু করে দেন। যেখানে যুবশক্তির বেশ কিছু কর্মী সেই কর্মসূচিতে এসে উপস্থিত হন।

অর্থাৎ সামনের বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মানুষের কাছে পৌছানোর জন্য এই দুয়ারে দুয়ারে কর্মসূচি চালু করা হয়েছে। কিন্তু সেই কর্মসূচি যাতে কোনোভাবেই ভেস্তে না যায় এবং জঙ্গলমহলে যাতে শুভেন্দু অধিকারীর অনুপস্থিতিতে সেই কর্মসূচি পিছিয়ে না পড়ে, তার জন্যই এবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি সেই জায়গায় নজর দিতে শুরু করলেন বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -

একাংশ বলছেন, তাহলে কি শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে দলের দূরত্ব তৈরি হয়েছে এবং তার সঙ্গে দল আর যত ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রাখবে না তা স্পষ্ট হয়ে গেল বিশেষজ্ঞদের মতে, শুভেন্দু অধিকারী ইতিমধ্যেই সৌগত রায়কে মেসেজ করে জানিয়ে দিয়েছেন, তাদের সঙ্গে কাজ করা সম্ভব নয়। স্বাভাবিকভাবেই তার পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে, তা নিয়ে জল্পনা ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী।

এখনও পর্যন্ত তিনি নন্দীগ্রামের তৃণমূল বিধায়ক। তবে তার সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের দূরত্ব তৈরি হওয়ার প্রধান কারণ, অতীতে তিনি যে সমস্ত জায়গায় দায়িত্ব ছিলেন, সেই সমস্ত জায়গা থেকে তাকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। যার ফলে দলের সঙ্গে তার দূরত্ব তৈরি হয়েছিল। আর তারপরেই বিভিন্ন অরাজনৈতিক কর্মসূচিতে দেখা যাচ্ছিল তাকে।

কিন্তু সাম্প্রতিককালে তার মান ভাঙানোর চেষ্টা হলেও লাভের লাভ কিছু হয়নি। তাই এই পরিস্থিতিতে সেই শুভেন্দু অধিকারী যে জঙ্গলমহলের সংগঠন দেখতেন, সেই জঙ্গলমহলের যাতে দুয়ারে দুয়ারে সরকার কর্মসূচি ভালো করে সাফল্য পায়, তার জন্য বার্তা দিতে শুরু করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!