এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কি হবে মেঘালয়ে? কটা আসন পাবে কংগ্রেস, বিজেপি বা তৃণমূল কংগ্রেস?

কি হবে মেঘালয়ে? কটা আসন পাবে কংগ্রেস, বিজেপি বা তৃণমূল কংগ্রেস?



৬০ আসন বিশিষ্ট মেঘালয় বিধানসভা নির্বাচন ক্রমশই জমে উঠছে। ত্রিপুরা ও নাগাল্যান্ডের সঙ্গে আগামী ৩ রা মার্চ মেঘালয় বিধানসভার ভোট গণনা হবে। মেঘালয়ে বর্তমানে কংগ্রেস ক্ষমতায় আছে, যথারীতি এই রাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখতে তৎপর তারা। ৬০ আসনের মেঘালয় বিধানসভায় সবকটি আসনেই প্রার্থী দিয়েছে তারা। শুধু তাই নয়, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী রাজ্যে তিন পাহাড়ি এলাকা গারো, খাসিয়া ও জয়ন্তিয়া পাহাড় চষে বেড়াচ্ছেন এবং যথারীতি বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণের সুরও চড়িয়েছেন তিনি। মঙ্গল ও বুধবার মেঘালয়ে ভোট প্রচারে এসে তাঁর অভিযোগ, বিজেপির হাতে প্রচুর টাকা, সেই টাকা দিয়ে চার্চকে প্রভাবিত করতে চাইছে। কিনতে চাইছে মানুষের ধর্মবিশ্বাসকেও, কিন্তু মেঘালয়ের মানুষ সেটা হতে দেবেন না।

অন্যদিকে এই রাজ্যে বেশ বেকায়দায় বিজেপি। ত্রিপুরা বা নাগাল্যান্ডে ভোটের প্রচারে গেলেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মেঘালয়ে ভোট প্রচারে। এই রাজ্যে অন্য কোনো দলের সঙ্গেও জোট হয়নি বিজেপির, বরং এনডিএ জোট ছেড়ে বেরিয়ে গিয়ে আলাদা লড়ছে এনপিপি। তারা এককভাবে ৫২ টি আসনে প্রার্থীও দিয়েছে। অন্যদিকে, বিজেপির রাজ্য সভাপতি শিবুন লিংডো জানিয়েছেন, দুর্নীতিই এবার বড় ইস্যু। দুর্নীতির প্রশ্নেই এবার মেঘালয়ে পরিবর্তন হবে। পরিবর্তনের আশা করলেও রাজ্যের সবকটি আসনে প্রার্থী দিতে পারেনি বিজেপি, ৬০ তীর মধ্যে মাত্র ৪৭ টি আসনে প্রার্থী দিতে পেরেছে তারা। তার থেকেও বড় কথা গোমাংস ইস্যুতে বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা ভোটের ঠিক আগেই দল ছেড়েছেন। মেঘালয়ে ভালো ফল করার আশায় তৃণমূল কংগ্রেসও। দলের পক্ষে রাজ্যের দায়িত্ত্বপ্রাপ্ত নেতা সব্যসাচী দত্ত জানিয়েছেন, পদ্ম ফুটুক বা না ফুটুক, মেঘালয়ে ঘাসফুল ফুটছেই। যদিও জঙ্গি সমস্যায় জর্জরিত রাজ্যের গারো পাহাড়ে ৬০ তীর মধ্যে মাত্র ৮ টি আসনে প্রার্থী দিতে পেরেছে তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু সব্যসাচীবাবুর কথায়, দলের প্রার্থীরা সকলেই বেশ জনপ্রিয়, অত্যন্ত সিরিয়াসও। তাই প্রার্থী দেওয়া সবকটি আসনেই জেতার বিষয়ে আশাবাদী আমরা। মেঘালয়ের আরেক প্রধান দল ইউডিপি ৩৬ টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে। নির্বাচনে লড়াই করা দলগুলি ক্ষমতা ধরে রাখা বা পরিবর্তনের কথা বললেও, রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের ধারণা এবারের বিধানসভা নির্বাচনে মেঘালয় শেষপর্যন্ত ত্রিশঙ্কু হতে চলেছে। তবে আসল চিত্রটা পরিষ্কার হবে আগামী ৩ রা মার্চ ইভিএম খুললে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!