এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > শাসকদলে যোগ দেওয়ার জল্পনা প্রবল করলেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়

শাসকদলে যোগ দেওয়ার জল্পনা প্রবল করলেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়



দীর্ঘদিনের প্রবল রাজনৈতিক বিরোধিতার সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে এসে হঠাৎ করে মুখ্যমন্ত্রী বন্দনায় মুখর সিপিএমের বহিষ্কৃত সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। ঋতব্রতর এহেন আচরণে রাজ্য রাজনীতির নানামহলে গুঞ্জন ছড়ালো। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের টুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট করা ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি টুইটকে কেন্দ্র করে বিতর্কের সূত্রপাত হয় । সেখানে ঋতব্রত ট্যুইট করেন, আমি এখন বাংলা থেকে নির্বাচিত রাজ্যসভার নির্দল সদস্য। আমার ভাবনায় এখন শুধু বাংলার ও বাংলার মানুষের জন্য উন্নয়ন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অধীনে বাংলা উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছে। আর তাঁর কথার ভাবে ভঙ্গিতে তিনি স্পষ্টতই বুঝিয়ে দিতে চেয়েছেন যে মমতার নেতৃত্বে সেই উন্নয়নের ধারায় তিনিও গা ভাসাতে চান। উল্লেখ্য মাত্র কদিন আগে দলবিরোধী নানা কাজে যুক্ত থেকে ইতিমধ্যেই ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় সিপিএম থেকে বহিষ্কৃত । এছাড়াও নম্রতা দত্তের সঙ্গে বিতর্কিত সমর্কের অভিযোগের জেরে সক্রিয় রাজনীতি থেকে একেবারে পিছনের সারিতে চলে গিয়েছেন তিনি। বাম রাজনীতি থেকে বিতারিত হওয়ার পর যখন তিনি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন বলে রাজনৈতিক মহলের জল্পনা, ঠিক তখনই, নম্রতা দত্ত নামের জনৈকা মহিলার সঙ্গে তাঁর বিতর্কিত সামরিক নিয়ে একাধিক খবর সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। যদিও এই ঘটনাও বেশ কিছুদিন অতিক্রান্ত, সিপিএম থেকে বহিস্কৃত হওয়ার পর তিনি এখন প্রায়শই প্রকাশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বন্দনায় ব্যস্ত। ফলে তাঁর এই পদক্ষেপকে ঘিরে ক্রমশ বাড়ছে রাজনৈতিক জল্পনা, এখন দেখার বিষয় এই যে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর দলে সুবক্তা ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঠাঁই দেন কি না !

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!