এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > BIG BREAKING: রাজ্যে কার্যত ২ সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা! কোন পরিষেবা কখন খোলা থাকতে চলেছে?

BIG BREAKING: রাজ্যে কার্যত ২ সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা! কোন পরিষেবা কখন খোলা থাকতে চলেছে?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – করোনার করাল থাবা গোটা দেশকে তছনছ করে দিচ্ছে। সেই তান্ডবলীলা থেকে বাদ নেই বাংলাও। রোজই বাংলায় আক্রান্ত হচ্ছেন ও প্রাণ হারাচ্ছেন হাজার হাজার মানুষ। এমনকি করোনার থাবা খোদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারে। করোনার ছোবলে প্রাণ গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর ভাই অসীম বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

আর সেই ভয়াবহ পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে দেশের অন্যান্য রাজ্যের মতোই কার্যত লকডাউনের পথে হাঁটল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশাসন। রবিবার থেকে আগামী ৩০ মে পর্যন্ত, ১৫ দিনের জন্য জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত দফতরগুলি ছাড়া, সমস্ত সরকারি, বেসরকারি দফতর বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করল নবান্ন।

লোকাল ট্রেন আগেই বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এ বার বাস এবং মেট্রো,এবং ফেরি পরিষেবাও সম্পূর্ণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ট্যাক্সি এবং অটোও চলাচল করবে না। আগের মতোই বন্ধ থাকবে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তবে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে এক্ষেত্রে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

রবিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে লকডাউনের মতোই কড়াকড়ির ঘোষণা করেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানান, করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত। সেই অনুযায়ীই সকলকে নিয়ম মেনে চলতে হবে। নইলে মহামারি আইনে কড়া পদক্ষেপ করা হবে।

এ দিন রাজ্য সরকার যে ঘোষণা করেছে, সেই অনুযায়ী, স্বাস্থ্য, আদালত, বিদ্যুত্‍, পানীয় জল, সংবাদমাধ্যম, সাফাই, পেট্রোল পাম্প, গাড়ির যন্ত্রাংশের মতো জরুরি পরিষেবা প্রদানকারী পরিষেবাই একমাত্র চালু থাকবে। এ ছাড়া বাকি সমস্ত সরকারি এবং বেসরকারি দফতর বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে শপিং মল, স্পা, সিনেমা হল, শরীরচর্চা কেন্দ্র, সুইমিং পুলও।

সত্‍কারে ২০ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না। বিয়েবাড়িতে জমায়েত করতে পারবেন না ৫০ জনের বেশি। ব্যাঙ্ক খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে ২টো পর্যন্ত। খোলা থাকবে এটিএম। মুদিখানা এবং বাজার খোলা থাকবে সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মিষ্টির দোকান। সমস্ত ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক সমাবেশ বন্ধ থাকবে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!