এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > মাঘের শুরুতে ছক্কা হাঁকাচ্ছে শীত! কিন্তু আর কতদিন? জেনে নিন কি বলছে হওয়া অফিস।

মাঘের শুরুতে ছক্কা হাঁকাচ্ছে শীত! কিন্তু আর কতদিন? জেনে নিন কি বলছে হওয়া অফিস।



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – পৌষ সংক্রান্তির আগে রাজ্যের উষ্ণতা বেড়েছিল অনেকটাই। সেক্ষেত্রে এমনটা হওয়ার কারণ নিয়ে বলতে দিয়ে আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছিলেন, বিশেষত পশ্চিমী ঝঞ্জার প্রভাবে এমনটা হচ্ছে। সেইসঙ্গে আবহাওয়াবিদদের কথায়, বস্তুত, হিমালয়ের উত্তরে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারণে ঠান্ডা কম হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বঙ্গোপসাগরের পূবালী হওয়ার কারণেও বঙ্গে শীত বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। তবে পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে সেই বাঁধা দূর হয়েছে। রাজ্যে আবার শীতের আমেজ লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

সেখানে কাল কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে আজ কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রার বিশেষ পরিবর্তন হবে না বলেই দেখা গেছে। আজ তা সামান্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে কালকের মতই আজ সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে আগামী আরো কয়েকদিনে তাপমাত্রার পারদ অনেকখানি কমবে বলেই জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। ১৭ তারিখ পর্যন্ত বঙ্গে এভাবেই থাকবে শীতের আমেজ। এরপর আবহাওয়া পরিবর্তন হতে পারে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সেইসঙ্গে আকাশ মোটামুটি পরিষ্কার থাকবে। আপেক্ষিক আর্দ্রতা ৯৯% থেকে ৪৪% থাকবে। বৃষ্টিপাতের কোনো সম্ভাবনা নেই। সেখানে মাঝারি ধরনের কুয়াশা থাকতে পারে বলে জানানো হয়েছে। উত্তরবঙ্গের ঠান্ডার সঙ্গে তাল মিলিয়ে দক্ষিণবঙ্গেও শৈত্য প্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে। সেইসঙ্গে উত্তরবঙ্গের মতোই দক্ষিণবঙ্গতেও মাঝারি ধরনের কুয়াশা থাকার সঙ্গে সঙ্গে তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি কমবেশি হবে বলে জানানো হয়েছে। সকাল ৬:২০ মিনিটে সূর্যোদয় এবং ৫:১৫ মিনিটে সূর্যাস্ত। এছাড়া জোয়ার বেলা ১২:৫৫ মিনিট এবং রাত ১২:৫৩ মিনিটে। এবং ভাঁটা বেলা ৪:২৪ মিনিট এবং পর দিন ভোর ৪:৪৩ মিনিটে।

অন্যদিকে, ভারত আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আগামী তিন দিনের মধ্যে উত্তর-পশ্চিম ভারতেও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে কম থাকবে। ঘন থেকে অতি ঘন কুয়াশার সঙ্গে জাঁকিয়ে শীত পড়বে। তবে দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগর এবং সংলগ্ন মালদ্বীপের উপর একটি ঘুর্ণিঝড়ের আশঙ্কা করা হয়েছে। এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে মাঝারি ঝড় এবং বজ্রপাতের সাথে ব্যাপক বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। সপ্তাহশেষে তামিলনাড়ু, পুডুচেরি, করাইকাল, কেরাল, মাহে এবং লক্ষদ্বীপে এর প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!