এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ভোটের আগে মাটি কামড়ে পড়ে থেকে পুরুলিয়া ঘাসফুলময় রাখার অঙ্গীকার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের

ভোটের আগে মাটি কামড়ে পড়ে থেকে পুরুলিয়া ঘাসফুলময় রাখার অঙ্গীকার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের



বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে পুরুলিয়া জেলায় শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের অস্বস্তি বাড়িয়ে সেখানে বিরোধী দল বিজেপির উত্থানে হতাশ হয়েছিল রাজ্যের শাসক দলের শীর্ষ নেতৃত্বরা। কিন্তু বিগত পঞ্চায়েতের মতো যেন আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে আর সেই ফলের পুনরাবৃত্তি না হয়, তার জন্য এবার সেই পুরুলিয়াকে পাখির চোখ করে ময়দানে নেমে পড়লেন যুব তৃনমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, শুক্রবার পুরুলিয়ার নবকুঞ্জ ময়দানে তৃণমূল প্রার্থী মৃগাঙ্ক মাহাতোর সমর্থনে একটি সভায় উপস্থিত হন যুব তৃনমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি। যেখানে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল প্রার্থী মৃগাঙ্ক মাহাতো, জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতো, জেলা পরিষদের সভাধিপতি সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায়, অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী সন্ধ্যারানি টুডু সহ জেলা তৃণমূল নেতৃত্বরা।

আর এই সভা থেকেই কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির উদ্দেশ্যে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “অনেকে বাইরে থেকে এসে বড় বড় ভাষণ দিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু মাথায় রাখবেন দুটো সভা করে বড় বড় কথা বলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হওয়া যায় না। যারা বাংলায় কথা বলতে জানে না, বাংলায় লিখতে জানে না, পড়তে জানে না তারা নাকি বাংলায় পরিবর্তন আনার কথা বলছে।”


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ব্যাপক উন্নয়ন হলেও কেন্দ্র সরকার শুধুমাত্র রামের নামে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিভাজন তৈরী করছে বলে এদের গেরুয়া শিবিরকে কটাক্ষ করে নাম না করে নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশ্যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “বিজেপি যত অন্যান্য রাজ্যতে হেরেছে, তত মূল্যবৃদ্ধি কমেছে। তাই বিজেপিকে এবারের নির্বাচনে হারালে রান্নার গ্যাস, পেট্রোল, ডিজেল সহ একাধিক জিনিসের দাম আরও কমবে।”

পাশাপাশি কার ফ্রিজে কত মাংস আছে তা খুঁজে বের করলেও জঙ্গিরা 350 কিলোগ্রাম আরডিএক্স নিয়ে ঢুকে পড়ল, আর তার কেন কোনো খবর নরেন্দ্র মোদি সরকারের কাছে ছিল না! এদিন সেই প্রসঙ্গও তুলে ধরে বিজেপিকে খোঁচা দেন তৃণমূলের যুবরাজ। আর সবশেষে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে পুরুলিয়া লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মৃগাঙ্ক মাহাতোকে বিপুল ভোটে জয়লাভ করার জন্য ছাত্র যৌবনদের এক হয়ে চলার বার্তা দেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফলাফল মাথায় রেখেই পঞ্চায়েতের মতো পুরুলিয়া জেলায় বিজেপি যাতে আর মাথাচাড়া দিতে না পারে, তার জন্যই এদিন সেই পুরুলিয়াতে এসে সেখানকার দলীয় সংগঠন চাঙ্গা করা এবং এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নমূলক কাজের কথা তুলে ধরে ভোটব্যাঙ্ককে শক্ত করতে মরিয়া চেষ্টা চালালেন তৃণমূলের যুবরাজ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!