এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কথা রাখেনি – তাই ভোট বয়কটের ডাক গোয়ালতোড়ের কুঁন্দরী শোলবাসীর

কথা রাখেনি – তাই ভোট বয়কটের ডাক গোয়ালতোড়ের কুঁন্দরী শোলবাসীর



পশ্চিম মেদিনীপুর,কার্তিক গুহ :  ভোট যায় ভোট আসে পাওয়া শুধুই প্রতিশ্রুতি। আর সেই প্রতিশ্রুতির বন্যার বাঁধ ভাঙতেই বেঁকে বসেছেন গ্রামবাসীরা। গ্রামের এ প্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত চারিদিকে পোষ্টার দিয়ে ভোট বয়কটের ডাক দিয়েছেন তারা।ভোট বয়কটের ডাক দিয়ে পোষ্টার দেওয়ার ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের গোয়ালতোড়ের হুমগড়ের কুঁন্দরীশোল গ্রামে।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ বারবার ভোটের সময় এসে রাজনৈতিক নেতা থেকে প্রশাসন প্রতিশ্রুতি দিয়ে গেলেও ভোট পেরিয়ে যাওয়ার পর আর কাজের কাজ কিছুই হয়নি।গড়বেতা -২ ব্লকের পিয়াশালা ৯ নং অঞ্চলের কুঁন্দরীশোল, বীরবাঁন্দী থেকে হুমগড়, আমোকোপা প্রভৃতি গ্রামে যাওয়ার জন্য যে কাঁচা রাস্তা আছে সেই রাস্তার অবস্থা দীর্ঘদিন ধরেই বেহাল হয়ে রয়েছে। বিশেষ করে বর্ষকালে পথ চলা দায় হয়ে যায়।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

গত বর্ষাতে গ্রামবাসীরা বিক্ষোভ দেখানোর পর রাস্তার কিছুটা মোরাম ফেলা হলেও পুরোপুরিভাবে মেরামর করা হয়নি। ফলে কয়েকমাসের মধ্যেই রাস্তার অবস্থা সেই আগের মতোই হয়ে গিয়েছে।

তাই এবার গ্রামবাসীরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রাস্তা তৈরি না হলে ভোট বয়কট করবেন, সেই মর্মেই হুমগড় সহ বিভিন্ন এলাকায় ভোট বয়কটের পোষ্টার দিয়েছেন। এই ব্যাপারে ব্লকের বিডিও স্বপন কুমার দেবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ভোট ঘোষনা হয়ে গিয়েছে, এই অবস্থায় নতুন করে রাস্তা তৈরি করার পরিকল্পনা করা যাবে না।

আমারা বিষয় টি সহনাভুতির সঙ্গে দেখছি। ভোট পেরোলেই নতুন করে রাস্তার জন্য পরিকল্পনা করা হবে। গ্রামবাসীরা যাতে ভোট বয়কটের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে তার জন্য তাদের বোঝানোর কাজ করা হবে প্রশাসনিক ভাবে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!