এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ভোটের মুখে কমিশনের চিন্তা বাড়িয়ে তিনদিনে উদ্ধার 16 কোটি টাকার সোনা, 75 লক্ষ টাকা, গ্রেপ্তার 6

ভোটের মুখে কমিশনের চিন্তা বাড়িয়ে তিনদিনে উদ্ধার 16 কোটি টাকার সোনা, 75 লক্ষ টাকা, গ্রেপ্তার 6



লোকসভা নির্বাচনের দিন যত এগিয়ে আসছে, ততই রাজ্য থেকে বিপুল পরিমাণ সোনা এবং হিসেবে বহির্ভূত টাকা উদ্ধার হতে শুরু করেছে। সূত্রের খবর, চলতি মাসেই ডিরেক্টর অফ রেভিনিউ ইনটেলিজেন্সের পক্ষ থেকে বিশেষ অভিযান চালিয়ে গত তিন দিনে 16.374 কেজি সোনা এবং 75.3 লক্ষ টাকা সহ 6 জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আর যা দেখে রীতিমতো উদ্বিগ্ন নির্বাচন কমিশন।

প্রসঙ্গত, যেকোনো নির্বাচনের সময় বিভিন্ন জায়গাতেই হাওয়ালার মাধ্যমে টাকা পাঠানো হচ্ছে বলে নানা সময় অভিযোগ উঠতে শুরু করে। আর এই সমস্ত অভিযোগ পেয়ে এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে এই ব্যাপারে নজরদারি শুরু করেছিল বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংস্থা এবং আয়কর দপ্তর।

জানা গেছে, সম্প্রতি একটি বিশেষ সূত্র মারফত ডিআরআই আধিকারিকদের কাছে একটি খবর এসে পৌঁছেছে যে, মধ্য কলকাতার সদর স্ট্রিট এলাকার একটি হোটেলে দুই ব্যক্তি প্রচুর পরিমাণে সোনা নিয়ে উঠেছে। আর এই খবর পেয়েই গত 25 শে মার্চ সেই হোটেলে হানা দিয়ে মহেশ রায় এবং রীতা মৈসেক নামে দুই ব্যক্তিকে আটক করে তাদের কাছ থেকে 5 কেজি সোনা উদ্ধার করা হয়। কিন্তু কোথা থেকে এই সোনা তারা নিয়ে আসলেন?


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এই ব্যাপারে সেই ধৃতদের জেরা করে তারা মায়ানমার থেকে মনিপুর দিয়ে তা কলকাতায় নিয়ে এসেছিল বলে জানায়। এমনকি তাদের দলের আরো কয়েকজন সদস্য কলকাতার সল্টলেকে রয়েছে বলেও জানা যায়। আর এরপরই গত 26 শে মার্চ ডিআর আইএর অফিসাররা সেখানে পৌঁছে উত্তর-পূর্ব ভারতের এক বাসিন্দাকে আটক করে তার ব্যাগ থেকে 3.626 কেজি সোনা উদ্ধার করে।

অন্যদিকে গত 28 শে মার্চ বড়বাজারের হাঁসপুকুরিয়ায় তল্লাশি চালিয়ে 8.048 কেজি সোনা উদ্ধার করা হয়। আর ৎবিপুল পরিমাণে সোনা এবং টাকা উদ্ধারের ঘটনাই এখন প্রবলভাবে ভাবাচ্ছে নির্বাচন কমিশনকে। একাংশের মতে, ভোটের আগে এই টাকা এবং সোনা ব্যবহার করা হচ্ছে। ফলে এখন এই বিপুল পরিমাণ সোনা এবং টাকা ধরপাকড় ঠিক কতদিন চলে সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!