এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > ভেন্টিলেশনে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, চিন্তায় রাজনৈতিকমহল!

ভেন্টিলেশনে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, চিন্তায় রাজনৈতিকমহল!



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গত ২৫শে অগস্ট করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছিল অসমের তিনবারের মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈয়ের। এর পরের দিনই তাঁকে গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আর সেখানেই তখন দেখা যায় যে তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এরপর কোভিড পরবর্তী উপসর্গের চিকিত্‍সা হওয়ার পরে তাঁকে গত ২৫শে অক্টোবর হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

তবে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পরে আবারও তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে বলে জানা গেছে। তাই ২রা নভেম্বর তাঁকে ফের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর সম্প্রতি সেখানেই এখন ভেন্টিলেশনে রয়েছেন তিনি। জানা গেছে, তাঁর শারীরিক অবস্থা আরও খারাপ হয়েছে। সেইসঙ্গে তাঁর একাধিক অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ কাজ করছে না বলেও জানা গেছে।

এখন তিনি অচৈতন্য অবস্থাতেই রয়েছেন। সেইসঙ্গে তাঁর নিঃশ্বাস জনিত সমস্যা হচ্ছে বলেও জানা গেছে। এদিন অসমের স্বাস্ত্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা জানিয়েছেন যে, করোনা পরবর্তী উপসর্গ নিয়ে গত ২রা নভেম্বর গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়। তারপর থেকে নন ইনভেসিভ ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে তাঁকে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

সেইসঙ্গে বয়স ৮৬ বছর হওয়ায় তাঁর শারীরিক অবস্থা নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন চিকিৎসকরা। জানা গেছে, তাঁর শারীরিক অবস্থার কথা শুনে শনিবার সন্ধ্যায় তাঁকে হাসপাতালে দেখতে যান হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। সেখানে চিকিত্‍সকদের সঙ্গে তিনি কথা বলেন বলেও জানা গেছে।

তিনি জানিয়েছেন, “আজ বিকেলে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। শ্বাস নিতে অসুবিধা হচ্ছে তাঁর। তাই চিকিত্‍সকরা সিদ্ধান্ত নিয়ে ইনটিউবেশন ভেন্টিলেশন শুরু করেছেন। তিনি সম্পূর্ণভাবে অচেতন রয়েছেন। তাঁর একাধিক অঙ্গ বিকল হয়েছে।”

তাঁর কথায়, “তাঁর অঙ্গ প্রত্যঙ্গগুলিকে ফের উজ্জীবিত করার চেষ্টা চলছে। ওষুধ দেওয়া হচ্ছে। অন্য পদ্ধতিতেও চেষ্টা করা হচ্ছে। চিকিত্‍সকরা ডায়ালিসিস করানোর চেষ্টা করছেন। আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টা খুবই গুরুত্ত্বপূর্ণ। আমরা সব রকমের চেষ্টা করছি।” সেইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন যে, দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস বা এইমসের চিকিত্‍সকদের সঙ্গেও ক্রমাগত যোগাযোগ রাখা হচ্ছে গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজের চিকিত্‍সকদের তরফে।

তাঁদের থেকে সব রকমের পরামর্শ নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এই অবস্থায় তাঁকে অন্য কোথাও স্থানান্তরিত করা সম্ভব নয় বলেই জানিয়েছেন তিনি। সেইসঙ্গে তাঁর পরিবারকে প্রতি মুহূর্তে খবর জানানো হচ্ছে বলেও জানা গেছে। তাঁদের অনুমতি নিয়েই সব কাজ করা হচ্ছে বলেও এদিন জানিয়েছেন তিনি।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!