এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > উত্তরপ্রদেশ গণধর্ষণের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন মমতা! কি বললেন তিনি! জেনে নিন!

উত্তরপ্রদেশ গণধর্ষণের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন মমতা! কি বললেন তিনি! জেনে নিন!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের ঘটনা গোটা ভারতবর্ষে দাগ কেটে দিয়েছে। এক তরুনীকে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করে হত্যা শোরগোল ফেলে দিয়েছে গোটা দেশে। অভিযোগ উঠেছে, এই হাথরাস গণধর্ষণকাণ্ডে পুলিশের পক্ষ থেকে সেই মৃতদেহ দাহ করে দেওয়া হয়েছে। যার জেরে নানা মহলের তরফে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা যাচ্ছে। কংগ্রেস সহ বিজেপি বিরোধী দলগুলো ইতিমধ্যেই তাদের প্রতিক্রিয়া দিতে শুরু করেছে। যার জেরে অস্বস্তিতে পড়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। আর এবার উত্তরপ্রদেশের গণধর্ষণের ঘটনা নিয়ে মুখ খুলে কড়া প্রতিক্রিয়া দিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, এদিন নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইটে তিনি লেখেন, হাথরাসের পাশবিক ও লজ্জাজনক ঘটনায় নিন্দা জানানোর কোনো ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না। মৃতার পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা রইল। লজ্জার বিষয় যেভাবে পরিবারের অমতে জোর করে মৃতদেহ দাহ করেছে পুলিশ, তাতে ভোটব্যাঙ্কের রাজনীতি করা ব্যক্তিদের মুখোশ খুলে দিয়েছে।” আর তৃণমূল নেত্রীর এইরূপ কড়া প্রতিক্রিয়া বিজেপি বিরোধী মনোভাবকে যেমন শক্তিশালী করল, ঠিক তেমনই গেরুয়া শিবিরকে অনেকটাই অস্বস্তিতে ফেলে দিল বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কেননা ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলো তাদের প্রতিক্রিয়া জানাতে শুরু করেছিল। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেভাবে তার প্রতিক্রিয়া না জানানোয় নানা মহলে গুঞ্জন তৈরি হয়েছিল। কিন্তু এবার এই ব্যাপারে মন্তব্য করে রীতিমত বিজেপি সরকারকে তুলোধোনা করলেন বাংলার প্রশাসনিক প্রধান  ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে সোশ্যাল মিডিয়ায় তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তৃণমূল যুবর সর্বভারতীয় সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে তিনি বলেন, “হাথরাসের নির্যাতিতা সম্মানের সঙ্গে বাঁচতে পারল না। আর বিজেপি সরকার তাকে সম্মানের সঙ্গে মরতেও দিল না। একজন মাকে তার সন্তানের মুখ শেষবারের মত দেখতে না দেওয়া পাশবিক আচরণের সামিল। নারীশক্তির উন্নয়ন ও বেটি বাঁচাও বেটি পড়াওয়ের নামে এটাই হল বিজেপি সরকারের স্বরূপ।”

আর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর এই ব্যাপারে কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়ে রীতিমত বিজেপিকে চাপে ফেলে দিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সব মিলিয়ে উত্তরপ্রদেশের নৃশংস ঘটনা গেরুয়া শিবিরকে ক্রমশ কোনঠাসা করে দিচ্ছে বলেই মত বিশেষজ্ঞদের। এখন নির্যাতিতা তরুণীর পরিবার এই ব্যাপারে সুবিচার পায় কিনা, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!