এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > উপস্থিত না থাকলেও বুদ্ধদেবের বার্তাই পাথেয় ব্রিগেড সমাবেশে, জেনে নিন

উপস্থিত না থাকলেও বুদ্ধদেবের বার্তাই পাথেয় ব্রিগেড সমাবেশে, জেনে নিন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে রাজনৈতিক লড়াই হলেও সেই জায়গা দখল করতে চাইছে বাম-কংগ্রেস। আর সেই কারণে নির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথেই ব্রিগেড সমাবেশের মধ্যে দিয়ে বাংলার রাজনৈতিক ময়দানে ঝড় তুলতে চাইছে তারা। যেখানে “বিজেপি হটাও বাংলা বাঁচাও” “তৃণমূল হটাও বাংলা বাঁচাও” এর মত স্লোগানও শোনা যাচ্ছে।

স্বাভাবিক ভাবেই এই রকম শ্লোগান যখন মঞ্চে দেওয়া হচ্ছে, তখন প্রত্যাশিতভাবেই এসে পড়ছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কথা বামফ্রন্টের আইকন হিসেবে পরিচিত বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। শারীরিকভাবে বর্তমানে অসুস্থ রয়েছেন তিনি। তাই এবারে চিকিৎসকদের অনুমতি না থাকায় ব্রিগেডে উপস্থিত হতে পারলেন না বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। কিন্তু তিনি সশরীরে উপস্থিত না থাকলেও তার একসময়ের বাণীকে সামনে রেখেই এই ব্রিগেড সমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে দেখা যাচ্ছে।

বলা বাহুল্য, সে বেশ কয়েক বছর আগেকার কথা। যখন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যে মিটিং মিছিল করে বেড়াচ্ছেন। একদিকে তৃণমূল এবং অন্যদিকে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত বাড়ছে রাজ্যে, ঠিক তখনই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বামেদের সমাবেশে উপস্থিত হয়ে বলেছিলেন, বিজেপির বিষ আকাশে বাতাসে ছড়িয়ে পড়ছে। আর বর্তমানে গত লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে সেই বামেদের জায়গা বিজেপির পক্ষ থেকে দখল করে নেওয়ায় রীতিমত চিন্তা বাড়ছে কাস্তে-হাতুড়ি শিবিরের।

আর সেই কারণেই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য সশরীরে ব্রিগেড সমাবেশে উপস্থিত না থাকলেও সেই বিজেপি এবং তৃণমূলের ব্যাপারে উষ্মা প্রকাশ করে দুই দলকে ক্ষমতাচ্যুত করার আহ্বান জানাতে দেখা গেল এই ব্রিগেড সমাবেশ থেকে। অর্থ্যাৎ বর্তমান পরিস্থিতিতে রাজ্য রাজনীতিতে যে সমীকরণ দাঁড়িয়েছে, তা যে অনেকদিন আগেই বুঝে গিয়েছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য এবং সেই কথা তুলে ধরেছিলেন, তা এদিনের সভা থেকে সকলেরই মনে পড়তে শুরু করেছে। আর তাই অনেক বছর আগে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের সেই বক্তব্য সমস্ত নেতা-নেত্রীদের গলায় শোনা যাচ্ছে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তবে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য মত আইকন যেভাবে বক্তব্য রেখে মানুষের মন জয় করে নিতেন, বর্তমান নেতারা কিভাবে মানুষের মনে জায়গা করে নিতে পারবেন, এখন এটাই বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে একাংশের মধ্যে।তবে শারীরিক প্রতিবন্ধকতা এখন সবথেকে বড় অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ক্ষেত্রে। আর সেই কারণেই ইচ্ছা থাকলেও ব্রিগেড সমাবেশে উপস্থিত হতে পারলেন না তিনি। তবে সমাবেশে উপস্থিত না থাকলেও, বেশ কয়েক বছর আগে নিজের করা বক্তব্য এদিনের ব্রিগেড সমাবেশে প্রতিটি নেতার মুখ থেকেই হয়ত বা শুনতে পাবেন বুদ্ধদেববাবু। আর এখানেই তার সার্থকতা বলে দাবি করছেন একাংশ।

তার মত পরিপক্ক রাজনীতিবিদ বেশ কয়েকবছর আগে যে কথা বলেছিলেন, বর্তমানে তা বাস্তব হতে শুরু করেছে। তাই যে যাই বলুন না কেন, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য যে এখনও সিপিএম তথা বিরোধী শিবিরের কাছে বড় আইকন, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে বুদ্ধদেববাবুর এককালে করা সতর্কবার্তা বর্তমানে বাস্তব হলেও, সেই মেঘ কাটাতে এবং নিজেদের দিকে জোয়ার আনতে কি পদক্ষেপ গ্রহণ করে বাম, কংগ্রেস এবং আব্বাস সিদ্দিকীর জোট, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!