এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > শিয়রে পঞ্চায়েত, দুই দাপুটে মন্ত্রীর ‘দূরত্ত্ব’ ঘোচাতে ‘বিশেষ’ পদক্ষেপ

শিয়রে পঞ্চায়েত, দুই দাপুটে মন্ত্রীর ‘দূরত্ত্ব’ ঘোচাতে ‘বিশেষ’ পদক্ষেপ



সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন, এই তার আগে উত্তরবঙ্গের দুই হেভিওয়েট মন্ত্রীর কাজিয়া মেটাতে আসরে নামল তৃণমূলের শীর্ষনেতৃত্ত্ব। কিছুদিন আগেই উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ প্রাক্তন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী ও বর্তমান পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছিলেন। ফলে দুই মন্ত্রীর বিবাদ প্রকাশ্যে চলে আসে। একে উত্তরবঙ্গে বিজেপির সংগঠন ভালো, তার উপর দুই হেভিওয়েট মন্ত্রী প্রকাশ্যে এইভাবে লড়লে পঞ্চায়েতে তার বিরূপ প্রতিক্রিয়া পড়তে বাধ্য। আর তাই বিভিন্ন সংবাদপত্রের প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায় সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর উত্তরবঙ্গ সফরের সময় উত্তরকন্যাতে দুই মন্ত্রীকে নিয়ে বসেছিলেন পর্যবেক্ষক অরূপ বিশ্বাস। আর দলের শীর্ষনেতৃত্ত্বের ‘চাপে’ এবার সম্পর্কের বরফ গলাতে ব্যস্ত হয়ে পড়লেন দুই মন্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রের খবর, পর্যটনমন্ত্রী গৌতমবাবু নিজের বাড়িতে ডেকে উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথবাবুকে দ্বিপ্রাহরিক আহার করালেন। রবীন্দ্রনাথবাবুর সঙ্গে ছিলেন দলের কোর কমিটির সদস্য কৃষ্ণ পাল, রঞ্জন সরকার, রঞ্জন শীলশর্মা। দুই ‘বন্ধুর পুনর্মিলন’ উৎসবে অবশ্য সব দায় চাপানো হয়েছে সংবাদমাধ্যমের উপরেই। খাওয়া শেষে রবীন্দ্রনাথবাবু সংবাদমাধ্যমে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে জানান, বন্ধুর বাড়িতে এসেছিলাম অনেকদিন পরে, বন্ধু ভালবেসে নিমন্ত্রণ করেছে, অনেক পুরানো বন্ধু আমার। একসঙ্গে খাওয়াদাওয়া করলাম, খুব ভালো রান্না হয়েছে, খুব ভালো লাগল, পছন্দের রান্না করেছে, ভালো খেয়েছি। আমাদের মধ্যে কোনও বিরোধ নেই, সংবাদমাধ্যমই দূরত্ব তৈরি করেছে। আমাদের মধ্যে কোনও মতপার্থক্য নেই, আমাদের দল এক, নীতি এক। আর বন্ধুত্ব হয় হৃদয়ে, আমাদের ৩০ বছরের বন্ধুত্ব। প্রায় তাঁর সুরেই সুর মিলিয়ে প্রতিক্রিয়া দেন গৌতমবাবুও। কিন্তু স্থানীয় রাজনৈতিকমহলের বক্তব্য, সম্প্রতি উত্তরবঙ্গ সফরে এসে স্বয়ং প্রকাশ্যে বার্তা দেন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে। সেখানে তিনি রবীন্দ্রনাথবাবুর ‘ডানা ছাঁটা’ বা ‘মন্ত্রীত্ত্ব কেড়ে নেওয়ার’ ইঙ্গিতও দেন। আর তারপরেই নাকি এই ‘বন্ধুত্ত্বের’ ভোজ। সুতরাং সব দায় সংবাদমাধ্যমের উপর চাপালেও ‘৩০ বছরের বন্ধুত্ত্ব’ সত্যিই টেকে নাকি সেখানে ‘ফাটল’ ধরে সেদিকেই এখন তাকিয়ে সংশ্লিষ্ট মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!