এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > পঞ্চায়েতের আগে ‘অন্য বিজেপির’ চালে বেকায়দায় মুকুল রায়-দিলীপ ঘোষরা

পঞ্চায়েতের আগে ‘অন্য বিজেপির’ চালে বেকায়দায় মুকুল রায়-দিলীপ ঘোষরা



আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনেই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসকে বেকায়দায় ফেলতে মরিয়া রাজ্য বিজেপি। আর সেই লক্ষ্যে মুকুল রায়কে সামনে রেখে পঞ্চায়েত যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে চাইছে তারা। কিন্তু রাজ্য বিজেপির সেই আসতে জল ঢেলে দেবার পরিকল্পনায় বিজেপিরই বিক্ষুব্ধ অংশ ‘সেভ বেঙ্গল বিজেপি’। বাংলার গেরুয়া শিবিরের বিভিন্ন বিক্ষুব্ধ অংশকে নিয়ে গঠিত এই সংগঠনের সভাপতি অশোক সরকার জানিয়েছেন, এ রাজ্যের আগামী ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনে যেভাবে মুকুল রায়ের উপর গেরুয়া শিবিরের দায়িত্ব কার্যত তুলে দেওয়া হয়েছে তাতে আশঙ্কা সিপিএম, কংগ্রেস এবং তৃণমূল কংগ্রেসের ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ নেতাদেরই এবার বিজেপির টিকিট পাওয়ার সম্ভাবনা।

সেভ বেঙ্গল বিজেপির তরফে আরো জানা গেছে, প্রকৃত গেরুয়া না হলে, মুকুল রায়ের মনোনীতদের বিরুদ্ধেই প্রার্থী দেবে তারা এবং ওই প্রার্থীদের জিতিয়ে আনার দায়িত্বও নেবে তারা। প্রকৃত যাঁরা বিজেপির, আগামী ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনে তাঁদের প্রার্থী করা না হলে, মুকুল রায়ের মনোনীত প্রার্থীদের বিরুদ্ধেই প্রার্থী দেবে সেভ বেঙ্গল বিজেপি। অশোকবাবু আরো জানিয়েছেন, আমাদের প্রার্থীদের জিতিয়ে আনার দায়িত্ব আমাদের। কিন্তু, মুকুল রায়ের মনোনীত প্রার্থীদের জন্য আমাদের এ ভাবে প্রার্থী দেওয়ার কারণে, আগামী ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিজেপির ফলাফলের দায়িত্ব রাজ্য নেতৃত্বের। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিকে বাঁচাতে, এ রাজ্যে দুর্নীতিমুক্ত বিজেপি গড়তে আমরা এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। রাজ্য বিজেপি ও সেভ বেঙ্গল বিজেপির এই লড়াইয়ে বঙ্গ বিজেপির অন্তর্দ্বন্দ্বই সামনে এল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা, আর তারফলে এর সুবিধা সরাসরি যাবে শাসকদলের ভোটবাক্সে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!