এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > তৃতীয় দফা নির্বাচনের দিনেই প্রার্থী ঘোষণা মিমের, সংখ্যালঘু ভোট নিয়ে বাড়ল চিন্তা!

তৃতীয় দফা নির্বাচনের দিনেই প্রার্থী ঘোষণা মিমের, সংখ্যালঘু ভোট নিয়ে বাড়ল চিন্তা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – এবার সংখ্যালঘু ভোট বিধানসভা নির্বাচনে সব থেকে বড় ফ্যাক্টর হতে চলেছে। একদিকে সংযুক্ত মোর্চার জোটে আইএসএফের যোগদান কে কেন্দ্র করে সংখ্যালঘু ভোট আদৌ তৃণমূলের দিকে থাকবে কিনা, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কা। ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে আইএসএফ সুপ্রিমোকে কড়া ভাষায় নাম না করে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এবার তৃণমূলের সংখ্যালঘু ভোটে ফাটল ধরিয়ে তৃতীয় দফার নির্বাচনের দিন সাত আসনে প্রার্থী ঘোষণা করল মিম। স্বাভাবিকভাবেই তৃতীয় দফার ভোটের দিন একাধিক আসনে প্রার্থী ঘোষণা নিয়ে এখন রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক জল্পনা তৈরি হয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শনিবার দুপুরে মুর্শিদাবাদ জেলার সাগরদিঘী এলাকায় একটি সভা করে মিম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়েইসি জানিয়ে দেন, এবারে মোট 13 টি বিধানসভা কেন্দ্রে প্রার্থী দেবে মিম। এমনকি বাকি ছয়টি আসনে প্রার্থীদের নাম আগামী সপ্তাহে ঘোষণা করা হবে বলে সেই সময় জানিয়ে দেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই নিজের কথামত তৃতীয় দফার ভোটের দিন মিমের অ্যাকাউন্ট থেকে রাজ্যের 7 টি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হয়। যেখানে উত্তর দিনাজপুর, মালদহ, রতুয়া, পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল উত্তর কেন্দ্রের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হয়। এছাড়াও মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গি, সাগরদিঘী এবং ভরতপুরের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে মিম।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এমনিতেই আব্বাস সিদ্দিকী সংযুক্ত মোর্চায় যোগদান করার কারণে তৃণমূলের অস্বস্তি বেড়েছে। এক্ষেত্রে সংখ্যালঘু ভোটে ফাটল ধরাতে এবং বিজেপিকে সুবিধা পাইয়ে দিতে আব্বাস সিদ্দিকী এই জোটে যোগদান করেছেন বলে দাবি করছে তৃনমূল কংগ্রেস। আর এই পরিস্থিতিতে সংখ্যালঘু ভোটকে আরও বিভক্ত করে দেওয়ার জন্য মিমের পক্ষ থেকে প্রার্থী দেওয়া হচ্ছে বলেই মনে করা হচ্ছে। যা অন্য কোনো রাজনৈতিক দল অপেক্ষা তৃণমূলের সবথেকে বড় অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়াবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

স্বাভাবিকভাবেই তৃতীয় দফার ভোটের দিন রাজ্যের সাতটি আসনে মিমের পক্ষ থেকে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের অন্দর মহলে ব্যাপক গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে, তা বলাই যায়। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!