এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > তৃণমূলের জন্য 10 বছর, বিজেপির জন্য কত সময় কাজ করবেন! প্রকাশ্য সভায় জানিয়ে দিলেন শুভেন্দু!

তৃণমূলের জন্য 10 বছর, বিজেপির জন্য কত সময় কাজ করবেন! প্রকাশ্য সভায় জানিয়ে দিলেন শুভেন্দু!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –জন্মলগ্ন থেকেই তৃনমূল কংগ্রেসের সঙ্গী ছিলেন তিনি। সাংসদ থেকে শুরু করে মন্ত্রী, বিধায়ক সমস্তকিছুই হয়েছেন। এমনকি দলের নীতিনির্ধারক কমিটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু সেই শুভেন্দু অধিকারী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংসর্গ ত্যাগ করে তার প্রতিপক্ষ টিম ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করতে পারেন, এমনটা কেউ স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেনি। তবে রাজনীতিতে সব কিছুই সম্ভব। কিছুদিন আগেই শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল কংগ্রেসে ছেড়ে যোগ দিয়েছেন গেরুয়া শিবিরে।

আর বিজেপিতে যোগদান করে বিভিন্ন জায়গায় সভা-সমিতি করে তৃণমূলকে উৎখাতের আহ্বান জানাতে দেখা যাচ্ছে তাকে। বিগত বাম আমলে বিভিন্ন জায়গায় সিপিএমের সন্ত্রাস উপেক্ষা করে সেই শুভেন্দু অধিকারীকে লড়াই আন্দোলনে শামিল হতে দেখা গেছে। ফলে বর্তমানে তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাত করতে তিনি বিজেপির হয়ে কতটা কাজ করবেন, এবার প্রকাশ্য সভা থেকে তা জানিয়ে দিলেন সদ্য বিজেপিতে যোগদানকারী শুভেন্দু অধিকারী। যাকে কেন্দ্র করে শুভেন্দু অধিকারীর মুখ থেকে এই বার্তা শোনার পরই রীতিমতো উজ্জীবিত হয়ে উঠতে শুরু করেছেন বিজেপি নেতা কর্মীরা।

কিন্তু প্রকাশ্য সভা থেকে কি এমন বললে শুভেন্দু অধিকারী? সূত্রের খবর, এদিন ভগবানপুরের অর্জুন নগরে ভারতীয় জনতা পার্টির তপশিলি মোর্চার পক্ষ থেকে একটি জনসভা করা হয়। আর সেখানেই উপস্থিত হন তৃণমূলের প্রাক্তন নেতা তথা সদ্য বিজেপিতে যোগদানকারী শুভেন্দু অধিকারী। আর সেই সভা থেকেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে আক্রমণ করতে দেখা যায় তাকে। জনতার উদ্দেশ্যে আহ্বান জানিয়ে শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘আমার পুরনো দলের জন্য আমি যদি দশ করে থাকি, তাহলে পৃথিবীর সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টিকে হৃষ্টপুষ্ট বলিষ্ঠ করে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে গণতান্ত্রিকভাবে এই প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানিকে তুলে ফেলে দেওয়ার জন্য 10 এর বদলে 100 ভাগ কাজ করব।”


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

স্বাভাবিক ভাবেই শুভেন্দু অধিকারীর এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে এখন আলোড়ন পড়ে গিয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল কংগ্রেসের জন্য কম কিছু করেননি। যেখানে যেখানে তৃণমূল কংগ্রেস বিপদে পড়েছে, সেখানে মুশকিল আসান হয়ে উঠেছিলেন তিনি। কিন্তু সেই শুভেন্দুবাবু এখন বিজেপিতে এসে লক্ষ্য স্থির করে ফেলেছেন। তার একটাই টার্গেট আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসকে ক্ষমতাচ্যুত করা। আর নিজের প্রাক্তন দলের জন্য তিনি যদি 10 করে থাকেন, তাহলে বর্তমান দলের জন্য 100 ভাগ কাজ করবেন বলে জানিয়ে দিলেন শুভেন্দুবাবু। এক্ষেত্রে তার এই মন্তব্যের মধ্যে দিয়ে পরিষ্কার হয়ে গেল যে, তিনি এবার কোনোমতেই তৃণমূল কংগ্রেসকে বিন্দুমাত্র জায়গা ছাড়বেন না।

এদিন স্বাস্থ্যসাথী থেকে শুরু করে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে কটাক্ষ করেন শুভেন্দু অধিকারী। কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প রাজ্য নিজের নামে চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করতে দেখা যায় তাকে। আর তার এই মন্তব্যের মধ্যে দিয়েই পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে যে, নির্বাচনের সময় যত এগিয়ে আসছে, ততই তিনি তাঁর প্রাক্তন দলের বিরুদ্ধে আরও বেশি করে সরব হতে শুরু করেছেন। অর্থাৎ আগামী নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস যে শুভেন্দু অধিকারীর এই সমস্ত মন্তব্যের মধ্যে দিয়ে অনেকটাই চাপে পড়তে শুরু করবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

তবে শুভেন্দুবাবু যেভাবে নিজের বর্তমান দলের জন্য কঠোর পরিশ্রম করবেন বলে জানিয়ে দিলেন, তাতে বিজেপি কর্মীরা এখন অনেকটাই উজ্জীবিত হতে শুরু করেছেন। এখন দেখার বিষয়, শুভেন্দু অধিকারী কঠোর পরিশ্রমের মধ্যে দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাত করে আগামী দিনে বিজেপিকে সাফল্য পাইয়ে দিতে পারেন কিনা, যার দিকে নজর থাকবে গোটা রাজনৈতিক মহলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!