এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল চরমে! অস্বস্তি বাড়িয়ে রাজনীতিই ছেড়ে দেওয়ার হুঙ্কার হেভিওয়েট বিধায়কের

তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল চরমে! অস্বস্তি বাড়িয়ে রাজনীতিই ছেড়ে দেওয়ার হুঙ্কার হেভিওয়েট বিধায়কের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –ফের প্রকাশ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার কথা শোনালেন দিনহাটা তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ। নির্বাচনের আগে তার এই ধরনের বিতর্কিত মন্তব্য এখন শোরগোল ফেলে দিয়েছে উত্তরবঙ্গ জুড়ে। যেখানে শুক্রবারের তিনি যদি নয়ারহাটে তার রাজনৈতিক কর্মসূচি করতে না পারেন, তাহলে রাজনীতি থেকে অবসর নেবেন বলে জানিয়ে দিলেন এই তৃণমূল বিধায়ক।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ভেটাগুড়ি 1 গ্রাম পঞ্চায়েত ও শুক্রবার দিনহাটা 2 ব্লকের নয়ারহাটে বাড়ি বাড়ি দলীয় প্রচার কর্মসূচী রয়েছে উদয়নবাবুর। কিন্তু তার আগেই তার এই ধরনের ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে জল্পনা ক্রমশ বাড়তে শুরু করল। তাহলে কি শুক্রবার তার এই কর্মসূচির আগে সেখানে তাকে যেতে বাধা দিতে শুরু করেছে কেউ বা কারা! আর তাই তিনি এই ধরনের মন্তব্য করলেন!

সূত্রের খবর, বুধবার দুপুরে দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ক উদয়ান গুহ নিজের ফেসবুক পোস্টে লেখেন, “আমার বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত নয়ারহাটে যদি আমি শুক্রবারের রাজনৈতিক কর্মসূচি করতে না পারি, তবে রাজনীতি থেকে অবসর নেব।” একাংশ বলছেন, এই নয়ারহাটের তৃণমূল বিধায়কের বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা হিসেবে পরিচিত হুমায়ুন কবীর। সেখানে যদি তৃণমূল বিধায়ককে কোনো কর্মসূচি করতে হয়, তাহলে হুমায়ুন কবীরকে সাথে নিয়েই করতে হবে। এক্ষেত্রে তার পক্ষ থেকে কোনো বাধাদানের আশঙ্কা করেই কি তৃণমূল বিধায়ক আগেভাগে এই ধরনের পোস্ট করে রাখলেন, এখন তা নিয়ে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন।

একাংশ বলছেন, এই প্রথম নয়, এর আগেও বিভিন্ন সময় বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা গেছে দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ককে। কিন্তু এবার যেভাবে শুক্রবার তার কর্মসূচি করা না হলে তিনি রাজনীতি থেকে অবসর নেবেন বলে জানিয়ে দিলেন, তাতে রীতিমত আলোড়ন পড়ে গিয়েছে শাসকদলের অন্দরমহলে।কেন তিনি এই ধরনের ফেসবুক পোস্ট করলেন?

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ বলেন, “আমি বাড়ি বাড়ি গিয়ে মানুষের সঙ্গে দেখা করব, তাদের সঙ্গে কথা বলব। সেই কর্মসূচির কথা অনেক আগেই ঘোষণা করেছি। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় কয়েকদিন ধরেই এই ব্যাপারে হুমকি দিয়ে পোস্ট করা হচ্ছে। সেজন্য আমি ওই কথা লিখেছি।” আর এখানেই প্রশ্ন, তাহলে কি তা বিধায়কের বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা এর পেছনে কোনো কলকাঠি নেড়েছেন! আর তার জন্যই কি উদয়ন গুহ এইরকম ফেসবুক পোস্ট করলেন!

এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূল নেতা মীর হুমায়ুন কবীর বলেন, “উনি এলাকার বিধায়ক। কর্মসূচি থাকতেই পারে। আমি বাধা দেওয়ার কে! ডিসেম্বর মাসে এলাকায় এসে বঙ্গধ্বনি যাত্রা করেছেন। তখন কেউ বাধা দেয়নি। আসলে উনি ভয় পেয়েছেন। মানুষ তাকে প্রশ্ন করলে সেই প্রশ্নের উত্তর উনি দিতে পারবেন না।” তবে যে যাই বলুন না কেন, শুক্রবারের কর্মসূচি নিয়ে যদি কোনোরকম গন্ডগোল প্রকাশ্যে আসে এবং কর্মসূচি করতে গিয়ে যদি বাধাপ্রাপ্ত হন উদয়ন গুহ, তাহলে পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হয়ে উঠতে পারে বলেই মত বিশেষজ্ঞদের। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!