এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > কংগ্রেস > তৃণমূলের অনুপ্রেরণায় এবার বৃহত্তর কর্মসূচি কংগ্রেসের? বিধানসভার আগে নতুন বিপদ শাসকদলের?

তৃণমূলের অনুপ্রেরণায় এবার বৃহত্তর কর্মসূচি কংগ্রেসের? বিধানসভার আগে নতুন বিপদ শাসকদলের?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – পথ দেখিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাই এবার তৃণমূলের পথে হেঁটেই তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়িয়ে দিতে চাইছে কংগ্রেস। মূলত, রাজ্য সরকারের নানা উন্নয়নমূলক প্রকল্পের কাজ বঙ্গধ্বনী কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মানুষের কাছে তুলে ধরতে চাইছে তৃণমূল নেতৃত্ব। আর এবার তৃণমূলের সেই দেখানো পথেই কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিগত কংগ্রেস সরকারের আমলে নানা কাজ সাধারণ মানুষকে জানানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

এমনিতেই এবারের বিধানসভা নির্বাচনে প্রধান লড়াই হতে চলেছে তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে। সেদিক থেকে বাম এবং কংগ্রেস জোট করার কথা চিন্তা ভাবনা করছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা চূড়ান্ত নয়। আর এই পরিস্থিতিতে দিনকে দিন কংগ্রেস এবং বামফ্রন্টের সংগঠন কার্যত তলানির মুখে। সেদিক থেকে তৃণমূল যেভাবে জনসংযোগ করতে শুরু করেছে, সেই একই কায়দায় জনসংযোগ করে এবার নিজেদের সংগঠনকে চাঙ্গা করার কৌশল নিল হাত শিবির।

সূত্রের খবর, রাজীব গান্ধী পঞ্চায়েতিরাজ সংগঠনের মধ্যে দিয়ে এবার কংগ্রেসের পক্ষ থেকে পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে বুথস্তর পর্যন্ত কংগ্রেস আমলের নানা কাজকর্ম সম্পর্কে মানুষের কাছে তুলে ধরা হবে। জানা গেছে, রাইট টু ইনফরমেশন আইন, বার্ধক্য ভাতা, ইন্দিরা আবাস যোজনার মত জনমুখি প্রকল্প সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরবেন কংগ্রেস নেতৃত্ব। একাংশ বলছেন, একদিকে তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে যখন বিভিন্ন বিষয় নিয়ে চর্চা চলছে, তখন এই সমস্ত প্রকল্পের উদ্যোগ যে কংগ্রেস একসময় নিয়েছিল, তা বোঝাতেই মানুষের কাছে পৌঁছে যাওয়ার জন্য কংগ্রেস নেতৃত্বের এই উদ্যোগ।

বিশ্লেষকরা বলছেন, যেন-তেন প্রকারেণ কংগ্রেসকে এবারের নির্বাচনে কিছুটা হলেও ভালো ফলাফল করতে হবে। বিগত দিনে একের পর এক নির্বাচনী তারা পর্যুদস্ত হতে শুরু করেছে। মালদহ থেকে শুরু করে মুর্শিদাবাদ জেলার শক্ত ঘাঁটিতে তাদের অস্তিত্ব সংকট দেখা দিতে শুরু করেছে। তাই এই পরিস্থিতিতে একসময় চালু করা উন্নয়নমূলক প্রকল্প গুলো মানুষের কাছে তুলে ধরে তৃণমূলের দেখানো পথেই মানুষের মন জয় করতে চাইছে কংগ্রেস।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে রাজীব গান্ধী পঞ্চায়েতিরাজ সংগঠনের রাজ্য কো অর্ডিনেটর তথা কংগ্রেস বিধায়ক মোস্তাক আলম বলেন, “আমাদের এই সংগঠনটি এখানে খুব বেশি সক্রিয় ছিল না। এবার আমরা সংগঠনকে মজবুত করার লক্ষ্য নিয়ে কিছুদিনের মধ্যেই আমরা প্রচারের কাজে ঝাঁপিয়ে পড়ব। দুর্নীতি দেখলে প্রতিবাদ করব। সেই সঙ্গে কংগ্রেসের সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ সম্পর্কে প্রচার করা হবে।” এদিকে এই ব্যাপারে উত্তর দিনাজপুর জেলা সংগঠনের কো-অর্ডিনেটর কামরুল হক বলেন, “গোটা দেশে কেন্দ্রীয় সরকারের যত জনমুখি প্রকল্প আছে, সব আসলে কংগ্রেস আমলের। কেন্দ্র-রাজ্য বিভিন্ন প্রকল্পের নাম বদলে নিজের নামে চালাচ্ছেন। আমরা সাধারণ মানুষের কাছে তা তুলে ধরব।”

তবে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এই উদ্যোগ নেওয়া হলেও তাতে গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন এই প্রসঙ্গে উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের সভাপতি কানাইলাল আগরওয়াল বলেন, “কংগ্রেস তো এখন ক্ষমতায় নেই। আমাদের প্রকল্পগুলো তো চালু প্রকল্প। এভাবে প্রচার করে ওদের কোনো লাভ হবে না।” সব মিলিয়ে এবার তৃণমূলের ঘুম উড়িয়ে দিতে আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূলের কায়দাতেই হাঁটতে চলেছে কংগ্রেস নেতৃত্ব। তবে এই পদ্ধতিতে কংগ্রেস হেঁটে কতটা সফলতা লাভ করতে পারে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!