এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > তৃণমূল নেতার বাড়িতে ইভিএম উদ্ধার, ভোট প্রক্রিয়া নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন, সেক্টর অফিসারের মন্তব্যে জল্পনা!

তৃণমূল নেতার বাড়িতে ইভিএম উদ্ধার, ভোট প্রক্রিয়া নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন, সেক্টর অফিসারের মন্তব্যে জল্পনা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – ভোটের প্রচারে বারবার বিজেপির কথামত কমিশন কাজ করছে বলে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। যেখানে ভোট প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর ইভিএম যাতে দলের কর্মীরা পাহারা দেয়, তার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রীতিমত আলোড়ন তৈরি হয় গোটা রাজ্যজুড়ে।

কিন্তু তৃতীয় দফার ভোটের মধ্যে যেন বেনোজির ঘটনা ঘটল রাজ্যে। যেখানে হাওড়ার উলুবেড়িয়া উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রে এক তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে উদ্ধার হল ইভিএম এবং ভিভিপ্যাড। যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। যেখানে এতকাল বিজেপির বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সমঝোতার অভিযোগ তুলতে শুরু করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস, সেখানে এক তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে ইভিএম উদ্ধারকে কেন্দ্র করে নানা মহলে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন।

জানা গেছে, তৃণমূল নেতার বাড়িতে এই ভিভিপ্যাড এবং ইভিএম পৌঁছে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সেক্টর অফিসারের বিরুদ্ধে। কিন্তু কেন তিনি এই কাজ করলেন? যেখানে বিধানসভা নির্বাচনের মত গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে, সেখানে কেন তৃণমূল নেতার বাড়িতে তিনি এই ইভিএম রেখেছিলেন! এদিন এই প্রসঙ্গে সেই সেক্টর অফিসার বলেন, “ভীষণ ক্লান্ত ছিলাম। রাতে একটু জিরিয়ে নেওয়ার জন্য ওই বাড়িতে গিয়েছিলাম। জানতাম না, ওটা তৃণমূল নেতার বাড়ি। অন্যায় করেছি। অনেক দিন ধরে ভোট করছি। বুঝতে পারলাম না, কিভাবে কি হল।”

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পর্যবেক্ষকদের মতে, একদিকে যেমন সেক্টর অফিসারের গাফিলতি এই ঘটনায় সামনে এল, ঠিক তেমনই বিরোধীরা এই বিষয়ে তৃণমূলকে চেপে ধরতে শুরু করবে। এতদিন যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কমিশনের সঙ্গে বিজেপির সমঝোতার অভিযোগ তুলেছিলেন, সেখানে তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে ইভিএম উদ্ধারকে কেন্দ্র করে ময়দানে নামতে পারে বিজেপি সহ অন্যান্য তৃণমূল বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো।

এক্ষেত্রে তাদের পক্ষ থেকে নির্বাচনের কথা তুলে ধরে তৃণমূলকে আক্রমণ করা হতে পারে। যার ফলে অনেকটাই ব্যাকফুটে পড়ে যেতে পারে রাজ্যের শাসক দল। স্বাভাবিক ভাবেই সেক্টর অফিসারের মত অভিজ্ঞ ব্যক্তির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠার পাশাপাশি এখন যথেষ্ট চাপে পড়ে গেল ঘাসফুল শিবির। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!