এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা কবে প্রকাশ? কে পেলেন তালিকায় সম্ভাব্য স্থান? জেনে নিন

তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা কবে প্রকাশ? কে পেলেন তালিকায় সম্ভাব্য স্থান? জেনে নিন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – নির্বাচন কমিশন ভোটের দিন ঘোষণা করে দিয়েছেন ইতিমধ্যে। রাজ্যজুড়ে প্রাকৃতিক আবহাওয়ার উত্তাপের সাথে সাথে বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ। এই অবস্থায় জোর জল্পনা চলছিল আজকে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হওয়া নিয়ে। তৃণমূল নেত্রী বৈঠকে বসলেও কিন্তু জানা যাচ্ছে, তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা আগামী তেশরা মার্চ কিংবা তারপরে ঘোষণা হতে পারে। তবে তৃণমূল সুপ্রীমো প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করে ফেলেছেন ইতিমধ্যেই বলে জানা গেছে এবং শীঘ্রই তা প্রকাশ করা হবে। জানা গিয়েছে, এদিন সকালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে তৃণমূলের নির্বাচন কমিটির বৈঠক হয়।

এই কমিটিতে ইতিমধ্যেই রয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সী, পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং সৌগত রায়ের মত হেভিওয়েট তৃণমূল নেতারা। জানা গেছে, তৃণমূল নেত্রী নিজেও কুড়ি মিনিটের জন্য বৈঠকে থেকে নবান্ন চলে গিয়েছেন। অন্যদিকে জানা গিয়েছে, কালীঘাটে তৃণমূলের এদিনের আলোচনায় নির্বাচনী প্রচারে নতুন চমক আনার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে। এক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠেছে, প্রার্থী তালিকা প্রকাশে দেরি হওয়ায় প্রথম এবং দ্বিতীয় দফায় প্রচারের সময় নির্ঘন্ট কমছে না তো? সে কথা স্বীকার করে নিয়েছেন অবশ্য তৃণমূল নেতা নেত্রীরা। এ ব্যাপারে পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, উপযুক্ত সময়ে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে।

অন্যদিকে জানা যাচ্ছে, মাসের-পর-মাস যেভাবে প্রশান্ত কিশোর এবং আইপ্যাক টিম স্বচ্ছ ভাবমূর্তিসম্পন্ন প্রার্থীদের খোঁজ চালিয়েছেন রাজ্যজুড়ে, সেদিকে নজর রেখা বলা যায়, এবারের প্রার্থী তালিকায় সেরকম স্বচ্ছ ভাবমূর্তিসম্পন্ন 40 জনের বেশি নতুন মুখ থাকতে পারে। এছাড়াও কমবয়সীদের তালিকায় থাকার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। একদিকে যেমন যুবনেতাদের গুরুত্ব বেড়েছে দলে, ঠিক সেভাবেই মহিলাদেরও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি সূত্রের খবর, একাধিক হেভিওয়েট নেতা এবার বাদ যেতে পারেন কিংবা তাঁদের আসন বদল হতে পারে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় সম্ভাব্য নাম হিসেবে উঠে এসেছে দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুপ্রকাশ গিরি, দেবরাজ চক্রবর্তী, উমা সরেন, ছত্রধর মাহাতো, সোহম চক্রবর্তী, কাঞ্চন মল্লিক এবং সায়নী ঘোষ ও অন্যান্যরা। অন্যদিকে জানা গিয়েছে, এদিন বিকেল চারটের সময় নবান্নে আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব আলোচনায় বসবেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। এদিনের বৈঠকে আরজেডির সাথে তৃণমূলের আসন রফা চূড়ান্ত হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। আরজেডি প্রধান তেজস্বী যাদব ইতিমধ্যেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে এ রাজ্যে লড়াই করতে চান বলে জানিয়েছেন। এবং রাজ্যে আরজেডি যে হিন্দিভাষীদের মধ্যে জনপ্রিয়তা অর্জন করবে, সে ব্যাপারে নিশ্চিত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

অন্যদিকে, ইতিমধ্যেই তৃণমূলের প্রতি সমর্থনের হাত বাড়াতে সচেষ্ট হয়েছেন অখিলেশ যাদব, শরদ পাওয়ারের মত হেভিওয়েট নেতারা। স্বাভাবিকভাবেই মনে করা হচ্ছে, তৃণমূল নেত্রীর জোর কিন্তু এতে ক্রমশ বাড়ছে। আর এক্ষেত্রে রাজনৈতিক মহলের একাংশের মত, যেভাবে তৃণমূল নেত্রী সময় হাতে নিয়ে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে চলেছেন তাতে এবারের প্রার্থী তালিকায় বড় চমক আসতে পারে। পাশাপাশি আরজেডি, এসপি, এনসিপি দল যদি তৃণমূলের সঙ্গে জোট বেঁধে বাংলায় লড়াইতে নামে তাহলে গেরুয়া শিবিরের জন্য কিছুটা চাপ সৃষ্টির ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। আপাতত অপেক্ষা তৃণমূল শিবিরের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশের দিকে।

 

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!