এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > তৃণমূল শিবিরের ফাটল চওড়া হতেই অশনিসংকেত শাসক দলে, বাংলা দখলের আশায় দিন গুনছে গেরুয়া শিবির

তৃণমূল শিবিরের ফাটল চওড়া হতেই অশনিসংকেত শাসক দলে, বাংলা দখলের আশায় দিন গুনছে গেরুয়া শিবির



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – 2019 এর লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই তৃণমূল শিবিরের ভাঙন শুরু হয়েছে। ধীরে ধীরে সেই ভাঙন বন্ধ তো হয়েইনি, বরং উপর্যুপরি বেড়ে গিয়েছে। গত ডিসেম্বরে তৎকালীন তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যেতেই তাঁর সাথে পা বাড়ান এক ঝাঁক তৃণমূলের নেতা, কর্মী, সাংসদ, বিধায়ক। সেই ধারা কিছুটা যখন স্থিমিত, ঠিক সে সময় তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রার্থী ঘোষণার পর গেরুয়া শিবিরে যাওয়ার ঢল নেমেছে। নির্বাচন শুরু হতে আর হাতে গোনা মাত্র কয়েকটা দিন। তার মধ্যেই গত শুক্রবার তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, 291 টি আসনের প্রার্থী তালিকা।

আর প্রার্থী তালিকা যে মুহূর্তে ঘোষণা করা শেষ হয়, ঠিক তারপর থেকেই শুরু হয় তৃণমূলের অন্দরে তীব্র বিদ্রোহ। প্রার্থী তালিকায় স্থান না পেয়ে একের পর এক নেতা, নেত্রী বিজেপি শিবিরের দিকে পা বাড়িয়ে দিয়েছেন ইতিমধ্যেই। এমনকি টিকিট পেয়েও দল ছেড়ে দিচ্ছেন কেউ কেউ। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, দীর্ঘদিনের দল ছেড়ে তৃণমূল নেতা নেত্রীরা কেন শুধুমাত্র প্রার্থী তালিকায় স্থান না পেয়ে অন্য দলের দিকে পা বাড়ালেন? রাজনৈতিক সমীক্ষায় উঠে আসছে অবশ্য অন্য তথ্য। এবারের প্রার্থী তালিকায় রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের বাইরে স্থান পেয়েছে রুপোলি জগতের বহু কলাকুশলী। আর সেখানেই তীব্র আপত্তি শুরু হয়েছে দলীয় নেতা নেত্রীদের।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তৃণমূল নেতা-নেত্রীদের অনেকেই মনে করছেন, গ্ল্যামার জগত থেকে রাজনীতিতে পা দেওয়া মাত্রই হাতে উঠে গেল প্রার্থী তালিকা। ফলস্বরূপ তীব্র প্রতিবাদ। পাশাপাশি দলের মধ্যে ক্রমশ চওড়া হচ্ছে ফাটল। আর সেই ফাটল দিয়ে প্রবেশ হচ্ছে গেরুয়া শিবিরের। এবারের প্রার্থী তালিকায় স্থান পেয়েছেন টালিগঞ্জের একঝাঁক তারকা। অভিনেতা-অভিনেত্রী থেকে পরিচালক যেমন রয়েছেন, তেমনই রয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী। পরিচালক রাজ চক্রবর্তী থেকে শুরু করে সোহম, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, লাভলী মৈত্র, কৌশানী মুখোপাধ্যায়, জুন মালিয়া, সায়নী ঘোষ, কাঞ্চন মল্লিক, অদিতি মুন্সি প্রমুখরা। প্রার্থী তালিকায় রুপোলি জগতের তারকাদের মোটেই মেনে নিতে পারছেন না রাজনৈতিক জগতের তারকারা।

যে কারণে দলের অন্দরে বাড়ছে অশান্তি। ইতিমধ্যেই বেশিকিছু বিধায়ক দল ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। অনেকেই শুভেন্দু অধিকারী এবং মুকুল রায়ের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে শুরু করেছেন যা ক্রমশ অশনি সংকেত তৈরি করছে তৃণমূলের আকাশে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। যেভাবে ফাটল তৈরি হয়েছে তৃণমূল শিবিরে, তাতে যদি তৃণমূল নেত্রী কোনরকম বাধা দিতে না পারেন, তাহলে আগামী দিনে গেরুয়া শিবিরের বাংলার মসনদ দখল শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা বলে ধরে নিতে হবে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!