এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > তৃণমূল-বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল এলাকা, তীব্র উত্তেজনা রাজনৈতিক মহলেও

তৃণমূল-বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল এলাকা, তীব্র উত্তেজনা রাজনৈতিক মহলেও



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – নির্বাচনী আবহে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রায় প্রত্যেক দিন রাজনৈতিক হিংসা, অশান্তির খবর আসছে। ভোটের অনেক আগে থেকেই ক্রমাগত নির্বাচন কমিশন বার্তা দিয়ে আসছে, রাজনৈতিক হিংসা গন্ডগোল বন্ধ করার এবং শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন করার। কিন্তু যত সময় যাচ্ছে, ততই নির্বাচন কমিশনের কথা প্রহসনে পরিণত হচ্ছে বলে দাবী রাজনৈতিক মহলের অনেকেরই। এবার অশান্তি বীরভূমে। সূত্রের খবর, বীরভূমের আমোদপুরে তৃণমূল পাটি অফিসে হামলার ঘটনা ঘটেছে। আর তৃণমূলের অভিযোগের তির বিজেপির দিকে বলেই শোনা যাচ্ছে।

তৃণমূল সূত্রে জানা গেছে, এদিন সকালে আমোদপুরের তৃণমূল পাটি অফিসে হামলা হয়, এমনকি অফিসের সামনে রাখা বাইক, টোটো ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে বিজেপির দিকে। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠায় ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। বীরভূমের বিভিন্ন জায়গা বিশেষ করে নানুর কিংবা পারুই এর মতন জায়গা রাজনৈতিকভাবে উত্তপ্ত থাকে সবসময়। কিন্তু তার অনেক আগে থেকেই এবার রাজনৈতিক অশান্তির খবর মিলছে বীরভূম জেলায়। বীরভূমের ভোট হতে চলেছে 29 শে এপ্রিল অর্থাৎ শেষ দফায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে তৃণমূল পাটি অফিসে হামলার ঘটনায় রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে আমোদপুরের সাংরা পঞ্চায়েত এলাকা।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তৃণমূলের পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে, প্রায় 100 জন বিজেপি সমর্থক বাঁশ, লাঠি নিয়ে বৈঠক চলাকালীন তৃণমূল কার্যালয়ে হামলা চালায়। এ ঘটনায় তিনজন তৃণমূল কর্মী আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, স্থানীয় তৃণমূল নেতারা বৈঠক করছিলেন আগামী নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতে। সে সময় হঠাৎ করে আক্রমণ হওয়ায় কেউই প্রতিরোধ করে উঠতে পারেননি। অন্যদিকে ঘটনার খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। দু’পক্ষের সংঘর্ষ থামাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় প্রশাসনকে বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে বীরভূমের পাশাপাশি তৃণমূল বিজেপির সংঘর্ষের খবর মিলেছে বাগনান থেকেও। শোনা যাচ্ছে, বাগনানে আবার বিজেপি অফিসে হামলা চালিয়েছে তৃণমূল।

এবারের নির্বাচনে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে ক্রমাগত তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষের খবর মিলছে। নজিরবিহীনভাবে এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে চলছে রাজ্যের আট দফা নির্বাচন। এমনকি রাজ্যের সমস্ত বিধানসভাগুলিই স্পর্শকাতর বলে মনে করা হচ্ছে কমিশনের পক্ষ থেকে। সুতরাং কেন্দ্রীয় বাহিনী ইতিমধ্যেই হাজির রাজ্যের সর্বত্র। কিন্তু তা সত্বেও হিংসা কিংবা সংঘর্ষের ঘটনা কিন্তু এড়ানো যাচ্ছেনা। অন্যদিকে আমোদপুরের এই ঘটনায় সাংরা পঞ্চায়েত এলাকা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এলাকা এখনও পর্যন্ত থমথম করছে। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। তবে এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!