এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অন্যের লেখাকে নিজের নামে চালানোর অভিযোগ উঠল তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে

অন্যের লেখাকে নিজের নামে চালানোর অভিযোগ উঠল তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে



বারুইপুরের দক্ষিণ চক্রের প্রাথমিক স্কুলের ভারপ্রাপ্তা প্রধান শিক্ষিকার লেখা রচনাকে নিজের নাম চালিয়ে নেবার অভিযোগ উঠলো তৃণমূলের শিক্ষক নেতা তথা দক্ষিণ চক্রের সভাপতি সুব্রত হালদারের বিরুদ্ধে।শুধু নিজের নাম চালিয়ে নেওয়াই নয় পাশাপাশি হুমকিরও অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত শিক্ষিকা মৈত্রিয়ী দে মুখোপাধ্যায় দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্রীড়া স্টেডিয়ামের আয়োজিত অনুষ্ঠানের জন্য ‘সুন্দরবনের বিপন্ন বন্যপ্রাণ’ নামক একটি স্লাইডশোতে নিজের লেখা একটি রচনা যোগ করেছিলেন।অভিযোগ অনুষ্ঠানের সম্পাদক সুব্রত হালদার শিক্ষিকাকে কোনো কিছু জিজ্ঞাসা না করেই নিজের নাম চাপিয়ে দেয় ওই রচনাটি।এমনকি এই বিষয় নিয়ে সুব্রতবাবুকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি শিক্ষিকাকে কটূক্তি এবং হুমকি দিয়েছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে ।গোটা ঘটনাটি এরপর ই-মেলের মাধ্যমে মৈত্রিয়ী দেবী জানান বিদ্যালয়ের পরিদর্শক অর্পিতা চৌধুরীকে।

‘‘ছোট একটা ভুল হয়ে গিয়েছে’’ বলে সুব্রতবাবু বলেন,রচনাটি তিনি লেখেননি।একই সাথে তিনি জানান,স্মরণিকা ছাপাবার দায়িত্বে থাকা শিক্ষক প্রশান্ত পন্ডিত তাকে রচনাটি নিজের নাম ছাপাবার জন্য বলেছিলেন।উল্টোদিকে প্রশান্তবাবু বলেন, ‘‘সুব্রতই আমাকে ওই লেখাটি দিয়ে বলেছিলেন তাঁর নামে ছাপতে। সেটি যে মৈত্রেয়ীর লেখা, তা আমি জানতাম না।’’এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি ঘনশ্রী বাগ বলেন, ‘‘কোনও শিক্ষক যদি এমনটা করে থাকেন, তবে তা অনৈতিক।’’

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!