এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > তৃণমূল ভাঙার বদলে ভাঙন ধরবে বিজেপিতেই, মত তৃণমূল সাংসদের

তৃণমূল ভাঙার বদলে ভাঙন ধরবে বিজেপিতেই, মত তৃণমূল সাংসদের



খুব অল্প বয়সেই সাংসদ হয়েছেন, ভালোবাসেন স্পষ্ট কথা বলতে।কিন্তু তিনি মুখ খুললেই বিতর্ক, তিনি বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরা। মুকুল রায়ের দলত্যাগের পর যখন তৃণমূলের শীর্ষনেতৃত্ত্ব মুখে কুলুপ এঁটেছেন, বাকিরাও কথা বলছেন মেপেজুপে, ঠিক তখনই তিনি চলে এলেন নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার পেজে ‘লাইভ’ হয়ে। আর যথারীতি মুকুল রায়ের দলত্যাগ সহ একের পর এক বাউন্সার ধেয়ে এল তাঁর দিকে, তিনি তার জবাবও দিলেন নিজস্ব ভঙ্গিতে এবং যথারীতি শুরু হল আরেকদফা বিতর্ক।
মুকুল রায়ের দলছাড়ার প্রসঙ্গে তিনি জানান, মুকুল রায় দল ছাড়ার জন্য যে কারণ দেখিয়েছেন, তার সঙ্গে তিনি একমত নন। কিন্তু খারাপ যে লাগছে, সেকথা তিনি অকপটে স্বীকার করেছেন। আর তারপরেই যোগ করেন, বাড়িতে পোষা কুকুর-বিড়াল যদি চলে যায়, তাহলে তো কষ্ট হয়। আর উনি তো মানুষ! এরপর উড়ে আসে আরেক বাউন্সার, মুকুল রায়ের দল ছাড়াতে কি দলের ক্ষতি হল? শীর্ষনেতৃত্ত্ব তো বলছে কোনো পার্থক্যই হবে না। তাঁর চটজলদি হেঁয়ালিভরা জবাব, ক্যামেরার সামনে অনেকেই হয়তো অ্যাক্টিং করছেন। কিন্তু দিনের শেষে আমরা সকলেই তো মানুষ।
তবে তাঁর সবথেকে বড় বিতর্কিত মন্তব্য আসে এরপরই, আর তা রাজ্যের প্রাক্তন বিজেপি সভাপতি রাহুল সিনহা সম্পর্কে। কয়েকদিন ধরেই বাতাসে ফিসফাস, বিজেপিতে মুকুল রায়ের অন্তর্ভুক্তি মেনে নিতে না পেরে তিনি শাসকদলে নাম লেখাতে পারেন। আর সেই প্রসঙ্গে অনুপমবাবু রাহুল সিনহার তৃণমূলে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না বলে দাবি করেছেন। কারণ হিসেবে তাঁর যুক্তি, মুকুল রায় বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় রাহুল সিনহা প্রচারের আলো আর পাবেন না। তাই তিনি তৃণমূলে চলে এলে তাতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। তাঁর ধারণা, তৃণমূল ভাঙার বদলে ভাঙন ধরবে বিজেপিতেই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!