এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > হারিয়ে যাওয়া উত্তরের জমি ফেরাতে তৃণমূলের ভরসা হতে চলেছে ‘মাস্কে রাখি’? জানুন বিস্তারিত

হারিয়ে যাওয়া উত্তরের জমি ফেরাতে তৃণমূলের ভরসা হতে চলেছে ‘মাস্কে রাখি’? জানুন বিস্তারিত



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –করোনা পরিস্থিতির কারণে সমস্ত রকম কর্মসূচি বন্ধ রয়েছে। তবে বাংলা ও বাঙালির প্রিয় উৎসব রাখি বন্ধন হবে না, এমনটা আবার হয়! তাই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও এবার কোচবিহার জেলায় রাখির পরিবর্তে মাস্ক বিলি করার সিদ্ধান্ত নিল জেলা তৃণমূল কংগ্রেস। সূত্রের খবর, সোমবার জেলা তৃণমূল অফিস থেকে এই মাস্ক বিলি করা হবে।

মূলত, বিশেষভাবে অভিনব‌ এই রাখি তৈরি করা হয়েছে। যে মাস্কের গায়ে আকা থাকছে রাখির ছবি। স্বাভাবিক ভাবেই করোনা পরিস্থিতি যখন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে, তখন রাখি বন্ধন উৎসবের ছোঁয়া দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে মানুষের মনকে নাড়া দেবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। জানা গেছে, রাখি কিনতে যে অর্থ খরচ হয়, সেই অর্থ দিয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীরা এবার মাস্ক কিনে তার গায়ে রাখির ছবি বসিয়ে মানুষের মধ্যে তা বিলি করতে উদ্যত হয়েছেন।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে কোচবিহার জেলা তৃণমূলের সভাপতি পার্থ প্রতিম রায় বলেন, “করোনা পরিস্থিতিতে আমরা এবার একটু ভিন্ন আঙ্গিকে রাখি বন্ধন উৎসব পালন করব। এবার মাস্কের মধ্যেই রাখির ছবি থাকবে। করোনা প্রতিরোধ করতে মানুষকে সেই রাখি দেওয়া হবে। আমি একটি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর থেকে প্রায় 2000 এমন মাস্ক নিয়ে এসেছি। জেলাতেও এই ধরনের মাস্ক বিলি করার কথা বলেছি। যারা এই ধরনের রাখি পাবেন না, তারা মাস্ক বিলির সঙ্গে হলুদ সুতো বিলি করবেন।”

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির মধ্যে যদি সামাজিক দূরত্ব পালন না করে, এই ধরনের রাখি বন্ধন উৎসব পালন করা হয়, তাহলে মানুষের মনে সেই সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক দল সম্পর্কে ভুল বার্তা যেতে পারে। তাই রাখি বন্ধন উৎসব একাধারে পালন করার মধ্যে দিয়ে মাস্ক বিলি নিঃসন্দেহে কোচবিহারের তৃণমূল নেতৃত্বকে বাড়তি সুবিধা পাইয়ে দেবে।

গত লোকসভা নির্বাচনে এমনিতেই কোচবিহারে তৃণমূলের অবস্থা শোচনীয় হয়েছিল। তারপর থেকে ঘুরে দাঁড়াতে বারবার সাংগঠনিক রদবদল হয়েছে। এবার পার্থপ্রতিম রায়কে দায়িত্ব নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাই আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলার সংস্কৃতি রাখি বন্ধন উৎসব পালন করে করোনা সচেতনতার বার্তা দিতে চাইছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। ফলে তৃণমূলে অভিনব উদ্যোগ নিলেও, তা কতটা ফলপ্রসূ হয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!