এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এখন বাড়ছে সুদ! তৃনমূলের ইঞ্চি সাইজের নেতাদের হুমকির হিসাব রাখছেন দিলীপ! ফেরাবেন কড়ায়-গণ্ডায়!

এখন বাড়ছে সুদ! তৃনমূলের ইঞ্চি সাইজের নেতাদের হুমকির হিসাব রাখছেন দিলীপ! ফেরাবেন কড়ায়-গণ্ডায়!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট:- বিধানসভা নির্বাচনের আগে এবার রাখঢাক না করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ব্যাটিং করতে শুরু করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নির্বাচনে ফলাফল কি হবে, তা কেউ জানেন না। তবে পরিস্থিতি যেদিকে এগোচ্ছে, তাতে তৃণমূলকে যে আর রাজনৈতিকভাবে লড়াইয়ের দিক থেকে ছেড়ে দেবে না ভারতীয় জনতা পার্টি, তা কার্যত নিজের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে বুঝিয়ে দিচ্ছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। বিভিন্ন জায়গায় ছোট-বড় নানা সভার মধ্যে দিয়ে তৃণমূলের সমস্ত স্তরের নেতাদের রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন তিনি। কখনও দেখে নেব, আবার কখনও বা সুদিন শেষ হয়ে এসেছে বলে হুঁশিয়ারি স্বর শোনা যাচ্ছে বিজেপির রাজ্য সভাপতি গলায়। আর এবার তৃণমূলের ইঞ্চি সাইজের নেতাদের দেওয়া হুমকির হিসেব সুদে আসলে ফেরত দেওয়া হবে বলে জানিয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ।

সূত্রের খবর, এদিন উত্তর 24 পরগনা লোকসভা থেকে তৃণমূলের নেতাদের উদ্দেশ্যে লাগাতার আক্রমণাত্মক বক্তব্য করতে দেখা যায় তাকে। যেখানে তিনি বলেন, “আমরা আগেই বলেছি 19 এ হাফ‌ পাবে। তাই হয়েছে। আর এবার একুশে তৃণমূল সাফ হয়ে যাবে। পশ্চিমবঙ্গের মানুষ করবেন। যারা চোখ রাঙিয়ে ভয় দেখিয়ে রেখেছে, পুলিশকে দিয়ে ভয় দেখিয়ে রেখেছে, তাদেরকে ছাড়া হবে না। সব ডায়েরিতে লিখে রাখা হচ্ছে।”

আর এরপরই তৃণমূল নেতাদের উদ্দেশ্যে মন্তব্য করতে গিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন, “তৃণমূলের ইঞ্চি সাইজের নেতারা যখন তখন চমকান। তাদের নাম লিখে রাখছি। সাধারণ মানুষের কাছ থেকে আমি নামগুলো নেব। এরপর কড়ায়-গণ্ডায় হিসাব নেওয়া হবে। এখন সুদ বাড়ছে। তৃনমূলের নেতাদের পায়ে তেল দিয়ে টাকা আয় করেছিলেন। আর ছেলেকে ব্যাঙ্গালোরে ভর্তি করেছিলেন। পড়াশোনা শেষ হবে না, ডাক্তারও হবে না, ইঞ্জিনিয়ারও হবে না।”

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সবশেষে পুলিশি নির্যাতনের কথা তুলে ধরেও পুলিশের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “সকালে ঘুম থেকে উঠেই বিজেপি নেতারা ফোন করতে থাকেন, দাদা এই নেতাকে ধরে নিয়ে গেছে পুলিশ। কত নেতাকে গ্রেপ্তার করবে দেখব। আগে নেতাদের ধরে নিয়ে গিয়ে চুরি ছিনতাইয়ের কেস দিত। আর এখন ধর্ষণের কেস দেওয়া হচ্ছে। অনেককে গাজার কেসও দেওয়া হচ্ছে।”

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিধানসভা নির্বাচনের সময় যত এগিয়ে আসছে, ততই শাসক-বিরোধী তরজা বাড়ছে। এবার তৃণমূলের বিরুদ্ধে আক্রমণ করতে গিয়ে যেভাবে নীচুতলার তৃণমূল নেতারা প্রতিমুহূর্তে বিজেপিকে হুমকি দিচ্ছেন, তাদেরকে দেখে নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে পাল্টা শোরগোল তুলে দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। একাংশের মতে, বিধানসভা নির্বাচনের আগে দলীয় কর্মীদের উজ্জীবিত করতে এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আরও বেশি করে জোর দিতেই এই ধরনের কথা বলেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। সব মিলিয়ে দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে বঙ্গ রাজনীতিতে শাসক-বিরোধী তরজা কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!