এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > একসঙ্গে মরার আনন্দই আলাদা – তৃণমূল শীর্ষ নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায় কাকে বললেন একথা? জেনে নিন

একসঙ্গে মরার আনন্দই আলাদা – তৃণমূল শীর্ষ নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায় কাকে বললেন একথা? জেনে নিন



 

অনেক পরিবারেই বৃদ্ধ-বৃদ্ধারা শেষ জীবনে এসে ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করেন, “ভগবান আমরা দুজনেই যেন একসাথে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করি।” বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই ইচ্ছে পূরণ হয় না। তবে যাদের ভাগ্যে এই ঘটনা ঘটে, তারা নিজেদের অত্যন্ত ভাগ্যবান বলেই মনে করেন। আর এবার বঙ্গ রাজনীতিতে বাম কংগ্রেসের জোট নিয়ে “একসাথে মৃত্যু হলে তার মজাই আলাদা” বলে মন্তব্য করে পরোক্ষে এই জোটকে খোঁচা দিলেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ তথা রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

 

প্রসঙ্গত, আগামী 25 নভেম্বর রাজ্যের তিনটি বিধানসভা কেন্দ্র, করিমপুর, খড়গপুর এবং কালিয়াগঞ্জে উপনির্বাচন রয়েছে। যে উপনির্বাচনে হাতে হাত ধরে লড়ে তৃণমূল এবং বিজেপিকে চাপে রাখতেই জোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাম এবং কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই সেই জোটের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দুই দলের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, করিমপুর বিধানসভায় বামেরা এবং খড়গপুর ও কালিয়াগঞ্জ বিধানসভায় কংগ্রেস প্রার্থী দেবে। আর যেখানে যারা প্রার্থী দিচ্ছে না, সেখানে তারা অপর দলকে সমর্থন করবে। তবে বাম এবং কংগ্রেস জোট করলেও তারা কতটা নির্বাচনে দাগ কাটতে পারবে, তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে তৈরি হয়েছে সংশয়। আর এই পরিস্থিতিতে এবার এই জোট নিয়ে সেই বাম এবং কংগ্রেসকে খোঁচা দিলেন তৃণমূলের সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী বলেন, “কংগ্রেস, সিপিএম কাউকে নিয়ে মাথাব্যাথা নেই। জোট হলেও যে ফল হবে, না হলেও তাই হবে। ওরা জোট করেছে ওদের নিজের সুবিধার জন্য। একা একা হারলে যতটা লজ্জা, একসঙ্গে হারলে তো সেই লজ্জা নেই।একসঙ্গে মরার আনন্দ আলাদা।”

বিশ্লেষকদের একাংশ বলছেন, সুব্রত মুখোপাধ্যায় এই কথা বলে বাম এবং কংগ্রেস এই দুই রাজনৈতিক দলকেই কার্যত “অস্তিত্বহীন” বলে বর্ণনা করলেন। আর বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদের এই কথা শুনে এখন অনেকেই বলছেন, তাহলে হয়ত বা বাম এবং কংগ্রেস নয়, তৃণমূলের সাথে এবারের নির্বাচনে মূল লড়াই হতে চলেছে ভারতীয় জনতা পার্টির বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!