এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > লক্ষ্য ২০২১, গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে এবার কড়া হুঁশিয়ারি তৃণমূল নেত্রীর, উত্তরবঙ্গ নিয়ে জট অব্যাহত!

লক্ষ্য ২০২১, গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে এবার কড়া হুঁশিয়ারি তৃণমূল নেত্রীর, উত্তরবঙ্গ নিয়ে জট অব্যাহত!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – দলে থেকে যে কোনোমতেই দ্বন্দ্ব বরদাস্ত করা হবে না, তার জন্য ইতিমধ্যেই কড়া বার্তা দেওয়া হচ্ছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে। কিন্তু তা সত্ত্বেও জেলায় জেলায় দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করেছে। সম্প্রতি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুরে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে। সূত্রের খবর, শনিবার হরিরামপুরে তিনটি অঞ্চলের নেতা কর্মীদের নিয়ে বৈঠক করেন জেলা তৃণমূলের সভাপতি অর্পিতা ঘোষ।

আর সেখানেই দলের নেতাদের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দেন তৃনমূলের এই হেভিওয়েট নেতা। তিনি বলেন, “দল কোনো গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বরদাস্ত করবে না। লোকসভা নির্বাচনে যারা দলের অঞ্চলের দায়িত্বে থেকে কাজ করেছেন, তাদের পুনরায় কাজ করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে হরিরামপুরে জেলা নেতৃত্ব প্রতি মাসে কর্মীদের নিয়ে মিটিং করে সাংগঠনিক কাজ করবে।”


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিকে দলের উর্ধ্বে কেউ যদি রাজনীতি করার চেষ্টা করে, তাহলে দল ব্যাবস্থা নেবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন অর্পিতা ঘোষ। শুধু তাই নয়, দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব রুখতে কার্যকরী সভাপতি গৌতম দাস ও তিনি প্রতিমাসে বৈঠক করবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছেন। অর্থাৎ সামনের বিধানসভা নির্বাচনের আগে এখন থেকেই দলকে সাজাতে উদ্যোগী হয়েছেন অর্পিতা ঘোষ।

আর তাই হরিরামপুরের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সকলকে একজোট হওয়ার বার্তা দিয়ে অর্পিতা ঘোষ বুঝিয়ে দিলেন, কোনো দ্বন্দ্ব এখন আর বরদাস্ত করা হবে না। তবে অর্পিতা ঘোষের এই বার্তা এখন দলের নেতা কর্মীরা কতটা মনোযোগী ভাবে পালন করে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!