এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > তৃণমূল যে নেত্রীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ, তাকেই সাদরে দলে নিয়ে নিলেন দিলীপ! চূড়ান্ত বিতর্ক বিজেপিতে

তৃণমূল যে নেত্রীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ, তাকেই সাদরে দলে নিয়ে নিলেন দিলীপ! চূড়ান্ত বিতর্ক বিজেপিতে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – লোকসভা ভোটে পরবর্তী সময়কালে তৃণমূলের অনেক হেভিওয়েট নেতা নেত্রী ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দিতে শুরু করেছিলেন। আর তখনই তৃণমূলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছিল যে, দলে যাদেরকে দুর্নীতির অভিযোগে বের করে দেওয়া হচ্ছে, তাদেরকে বিজেপি স্বাগত জানাচ্ছে। আর এবার বাঁকুড়া জেলা পরিষদ সদস্যা বাণী হাজরার বিরুদ্ধে যে বিজেপির পক্ষ থেকে এত অভিযোগ তোলা হয়েছিল, সেই বিজেপিই তৃণমূল নেত্রী বানী হাজরাকে নিজেদের দলের স্বাগত জানাল।

স্বাভাবিক ভাবেই গোটা ঘটনায় তীব্র বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে বাঁকুড়া জেলা জুড়ে। সূত্রের খবর, শুক্রবার ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দেন বাঁকুড়া জেলা পরিষদের সদস্য তৃণমূলের বাণী হাজরা। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের হাত ধরেই তিনি গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেন। আর এই ঘটনাতেই এখন তীব্র বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছে গেরুয়া শিবিরের অন্দরমহলে। বিজেপির অন্দরেই এখন বাণীদেবীর এই যোগদান নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। অনেকেই বলছেন, এতদিন এই বাণী হাজরার দুর্নীতি নিয়ে বিজেপির পক্ষ থেকে প্রতিবাদ করা হয়েছিল।

কিন্তু এবার সেই তিনিই গেরুয়া শিবিরে যোগদান করায় বিজেপির নিচুতলার কর্মীদের মনোবল অনেকটাই ধাক্কা খেল। ইতিমধ্যেই বিজেপির অনেক নেতা-কর্মী বাণী হাজরাকে বহিষ্কারের দাবি জানাতে শুরু করেছেন। জেলা এবং রাজ্য সভাপতির কাছে আবেদন জানিয়ে পৌছে গেছে চিঠি‌। এদিন এই প্রসঙ্গে বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতির হরকালী প্রতিহার বলেন, “স্থানীয় কর্মীরা ক্ষোভের কথা জানিয়েছেন। আমি বিষয়টি রাজ্য নেতৃত্বকে জানিয়েছি। পরবর্তী সময়ে রাজ্য যে নির্দেশ দেবে, আমরা সেই মত কাজ করব।”

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু তাকে নিয়ে বিজেপির অন্দরে যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে, তাতে তিনি বিজেপিতে যোগদান করলেও, কি ঠিকমত দল করতে পারবেন? এদিন এই প্রসঙ্গে বাণী হাজরা বলেন, “লোকসভা নির্বাচনের পর বিজেপি নয়, তৃণমূল কংগ্রেসেরই একটা অংশ আমার বাড়ির সামনে বিশৃঙ্খলা তৈরি করেছিল। আমি দলের চক্রান্তের শিকার হয়েছিলাম। প্রধানমন্ত্রীর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছি।”

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাণী হাজরার মতো নেত্রীর বিরুদ্ধে এতদিন বিজেপির পক্ষ থেকে নানা অভিযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু এবার সেই তিনিই গেরুয়া শিবিরে যোগদান করার পর বিজেপি নেতা কর্মীরা প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন। স্বাভাবিকভাবেই গোটা ঘটনায় এবার ঘরে বাইরে বিজেপি যে ব্যাপক চাপে পড়বে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!