এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > এবার মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় আক্রান্ত হলেন স্বয়ং তৃণমূল কাউন্সিলর

এবার মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় আক্রান্ত হলেন স্বয়ং তৃণমূল কাউন্সিলর



এবার এলাকায় মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় আক্রান্ত হলেন তৃণমূল কাউন্সিলর অনিমেষ মুখার্জী।অভিযোগ এদিন রাতে একদল দুষ্কৃতী তাদের উপর চড়াও হয় এবং তাতে দলের কাউন্সিলর সহ আরো চার জন কর্মীও আহত হয়। তাঁরা হলেন, গৌতম গোস্বামী, শেখ ফিরোজ়, মলিনা অধিকারী ও সৌরভ কুণ্ডু।

অনিমেষবাবু জানিয়েছেন,খড়দা এলাকায় জনার্দন নামক একটি ক্লাবে অনেক দিন ধরেই মদের আসর বসে।গত রাতে তেমন একটি আসরে মদ্যপান রত কিছু যুবকের মধ্যে হটাৎ তর্ক-বিতক শুরু হয়।খবর পেয়ে তিনি এসে ঝগড়াটির মীমাংসা করেন এবং তারপর পি ডি মোড়ের পার্টি অফিস চলে আসেন।তিনি আরও বলেন কিছু সময় পর চন্দন রায় ও রঞ্জন রায়ের নেতৃত্বে একদল দুষ্কৃতী পার্টি অফিসের ভেতরে ঢুকে তাদের উপর আক্রমণ চালায়।অনিমেষবাবুর মাথায় পিস্তলের বাট দিয়ে মারা হয়।এছাড়া এই হামলার জেরে পার্টি অফিসের চার জন কর্মী আক্রান্ত হয়,যার মধ্যে একজন মহিলা কর্মী ছিল।

সকলকে খড়দার বলরাম হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।অনিমেষবাবুর মাথায় সেলাই পরে এবং চোখে ও মাথায় গুরুতর চোট লেগেছিলো শেখ ফিরোজ় ও গৌতম গোস্বামীরও।খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

খড়দা পৌরসভার উপপৌরপ্রধান সুকণ্ঠ বণিকের অভিযোগ, “দীর্ঘদিন ধরে ওই ক্লাবে বহিরাগতরা আসে এবং মদ্যপান করে। তার প্রতিবাদ করায় আমাদের কাউন্সিলরকে মারধর করা হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে বিজেপি ও সিপিএম আশ্রিত দুষ্কৃতীরা রয়েছে।”যদিও দুই পক্ষই তাদের উপর ওঠা সকল অভিযোগকেই নাকচ করে দিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!