এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > তবে কি বিজেপিকে গুরুত্ত্ব দিচ্ছে তৃণমূল?নাহলে এমন কাজের কারণ কি ?উঠছে প্রশ্ন

তবে কি বিজেপিকে গুরুত্ত্ব দিচ্ছে তৃণমূল?নাহলে এমন কাজের কারণ কি ?উঠছে প্রশ্ন



এই সংকল্প যাত্রা আদালত অবধি গেলো। মিছিলে অশান্তি, হামলা,মার্ পাল্টা মার্ যা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে কম বিতর্ক হলো না। এবার সেই বিতর্ককেই আবার উস্কে দিলো এদিনের তৃণমূলের পাল্টা বাইক মিছিল। এদিন জলপাইগুড়ি জেলা তৃণমূল কংগ্রেস ফণীন্দ্র দেব ইন্সটিটিউটের মাঠ থেকে ফালাকাটা অব্দি মিছিল করে। কানা গুস জানা গেছে যে বিজেপির সংকল্প যাত্রার পালটা হিসেবে তৃণমূলের এই বাইক মিছিল। এই নিয়ে তৃণমূলের জলপাইগুড়ি জেলা সভাপতি সৌরভ চক্রবর্তী বললেন, “এলাকায় চোর, ডাকাত ঢুকলে যেমন মানুষকে সজাগ করা হয়, তেমনি আমরা জেলার মানুষকে সজাগ করার জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছি। জাগো গৃহস্থ জাগো। বাংলায় ডাকাত ঢুকেছে। বিজেপি যেভাবে বাইক মিছিল করেছে, তাতে এলাকার বহু জায়গাতেই শান্তির পরিবেশ নষ্ট হয়েছে। তবে আমরা শান্তিপূর্ণভাবেই বাইক মিছিল করব।”
পাশাপাশি তিনি বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন “দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে প্রধানমন্ত্রী মদত দিচ্ছেন। সমবায় ব্যাঙ্কগুলো ধ্বংস করা হচ্ছে। বাইরে থেকে সমাজবিরোধী নিয়ে এসে জেলায় জেলায় বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি করা হচ্ছে। সেকারণে আজ মিছিলে জেলার ছাত্র এবং যুব সম্প্রদায় অংশগ্রহণ করছে।”
সৌরভবাবুর অভিযোগ, “সম্প্রতি জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার জেলায় সিপিআইএম এর কিছু লোকজন বিজেপি -তে ঢুকে মস্তানি শুরু করেছে। বিজেপি -র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এই ঘটনায় নেতৃত্ব দিচ্ছেন।” নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিজেপি নেতা বলেন যে তৃণমূল বিজেপির বার বাড়ন্তে ভয় পেয়েছে আর তাই পাল্টা মানুষকে ভয় দেখতে বাইক মিছিল করছে ,এইভাবে ভয় দেখিয়ে সন্ত্রাস করে আটকানো যাবে না ,বাংলায় বিজেপি আসবেই।তবে কি বিজেপিকে গুরুত্ত্ব দিচ্ছে তৃণমূল?নাহলে এমন কাজের কারণ কি ?রাজনৈতিক মহলে উঠছে প্রশ্ন

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!