এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতে বিরোধীদের ‘উচিত শিক্ষা’ দিয়ে শূন্যে নামিয়ে আনার নিদান তৃণমূল নেত্রীর

পঞ্চায়েতে বিরোধীদের ‘উচিত শিক্ষা’ দিয়ে শূন্যে নামিয়ে আনার নিদান তৃণমূল নেত্রীর



পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিরোধীদের শূন্যে নামিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছিলেন অনেক আগেই কিন্তু এবার তাদের সমর্থকদেরকেও শুন্য করে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হলো। এদিন অসীমা পাত্র জানালেন যে আসন্ন পঞ্চায়েতে নির্বাচনে বিরোধিদের এমন শিক্ষা দিন যাতে নির্বাচনের ফলাফলের পর বিরোধী দলে একজন কর্মী-সমর্থক না থাকে। সবাই যেন দল ছেড়ে তৃণমূলে চলে আসে। বৃহস্পতিবার জলপাইগুড়ি মিলন সংঘ ময়দানে উত্তরবঙ্গের তৃণমুল মহিলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হলো। আর সেখানেই এমন বললেন নেত্রী। এদিন তিনি তাঁর বক্তৃতায় আরো বললেন যে,”আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন এই রাজ্যে সেমি ফাইনাল।২০১৯ র লোকসভা নির্বাচন হবে ফাইনাল। বিজেপিকে ধুলিসাত্‍ করার নির্বাচনী খেলা।” মন্ত্রী শশী পাঁজা তাঁর ভাষণে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে রাজ্য ও কেন্দ্রের উন্নয়নে পরিসংখ্যান দিয়ে আঘাত করলেন । তিনি বললেন, “কেন্দ্রীয় সরকার বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও প্রকল্পের বড়াই করার পরেও দেশে মাত্র ১০০ কোটি টাকা আইসিডিএস প্রকল্পে বরাদ্দ করে লজ্জা দিয়েছে মোদী সরকার।তুলনায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার শুধু কন্যাশ্রীতেই রাজ্যে ৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে ।” অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের কারিগরি শিক্ষা মন্ত্রী অসীমা পাত্র , রাজ্যের নারী, শিশু ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা। এনারা মঞ্চ ছিলেন আর দর্শকাসনে ছিলেন মন্ত্রী অরুপ বিশ্বাস, গৌতম দেব, রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, সাংসদ বিজয়চন্দ্র বর্মন, দশরথ তিরকে, তৃণমূল জেলা সভাপতি সৌরভ চক্রবর্তী, জেলা যুব তৃণমূল সভাপতি সৈকত চট্টোপাধ্যায়, এবং জলপাইগুড়ি পুরসভার চেয়ারম্যান মোহন বোস। এদিনের অনুষ্ঠান সম্পূর্ণভাবে পরিচালনা করেন মহিলা নেত্রী বৃন্দ , এমনকি অনুষ্ঠানে কোনো পুরুষ নেতার ভাষণের ব্যবস্থাও ছিলোনা ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!