এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা >   তৃণমূলের আড়াই কোটিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বিজেপির ৫ কোটি, জোর সোরগোল রাজ্যে!

  তৃণমূলের আড়াই কোটিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বিজেপির ৫ কোটি, জোর সোরগোল রাজ্যে!



2021 এর বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, ততই জমে উঠছে রাজনৈতিক লড়াই। গত লোকসভা নির্বাচনে এরাজ্যে বিজেপির প্রভাব বৃদ্ধির সাথে সাথেই আতঙ্কিত হয়ে ওঠে তৃণমূল কংগ্রেস। কোনোভাবেই বিজেপির বাংলা দখলের টার্গেট যে সফল হতে দেওয়া যাবে না, তার ব্যাপারে দলীয় স্তরে নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করে তৃণমূল। প্রশান্ত কিশোরের পরামর্শ মত “দিদিকে বলো” কর্মসূচির পর এবার রাজ্যের 294 বিধানসভা কেন্দ্রের আড়াই কোটি মানুষের কাছে পৌঁছতে “বাংলার গর্ব মমতা” কর্মসূচি নিয়ে ময়দানে নেমে পড়েছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

ঘাসফুল শিবিরের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, এই কর্মসূচির মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে কেন বাংলার গর্ব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তা তুলে ধরা হবে। আর এতেই রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির হাওয়া ফিকে করা সম্ভব হবে তৃণমূলের পক্ষে। তবে তৃণমূল কর্মসূচি নেবে, আর বাংলা দখলের টার্গেট করা বিজেপি তাকে ছেড়ে দেবে! তা কি কখনও হয়! তাই তো গোটা রাজনৈতিক মহল তাকিয়েছিল বিজেপির কর্মসূচির দিকে। আর সেই মতনই সকলকে রীতিমত চমকে দিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে এবার সাধারন মানুষের দরজায় দরজায় যাওয়ার এক অভিনব কর্মসূচি নিল ভারতীয় জনতা পার্টি।

সূত্রের খবর, “বাংলার গর্ব মমতা” কর্মসূচিতে আড়াই কোটি মানুষের কাছে যাওয়ার টার্গেট বেঁধে দেওয়া হলেও, তাকে চ্যালেঞ্জ করে পাঁচ কোটি মানুষের কাছে “পরিবর্তনের জমানার কুশাসন” নিয়ে পৌছে যাবে ভারতীয় জনতা পার্টি। অর্থাৎ তৃণমূলের দ্বিগুণ বেশি জনসাধারণের কাছে পৌঁছে বিজেপি রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে তৃণমূল বিরোধী মনোভাব মানুষের মনে প্রবেশ করাবে বলে মনে করছে একাংশ।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

ইতিমধ্যেই বিজেপির তরফে “আর নয় অন্যায়” কর্মসূচির সূচনা করা হয়েছে। যেখানে মিসডকল দিয়ে প্রায় 3 লক্ষ মানুষ তৃণমূলের প্রতি বীতশ্রদ্ধ মনোভাব পোষণ করেছেন বলে দাবি গেরুয়া শিবিরের। আর এবার “বাংলার গর্ব মমতা” তৃণমূলের যে কর্মসূচি, তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পাল্টা বিজেপির “পরিবর্তনের জমানার কুশাসন” মানুষের দরবারে কতটা গ্রহণযোগ্যতা পায়, সেদিকেই নজর থাকবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।

এদিন এই প্রসঙ্গে সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “জনসংযোগ কর্মসূচিতে রাজ্যের পাঁচ কোটি মানুষের কাছে আমরা যাব। সেখানে তৃণমূল সরকারের গত 9 বছরের কার্যকালে ব্যর্থতার লিখিত চার্জশিট সম্বলিত পুস্তিকা বিলি করা হবে। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মতামত জানতে সংকল্প পত্র বিলি করা হবে। যা আগামী দিনে বিজেপির পরিচালিত নয়া সরকার দিশা দেখাবে।” তবে দীলিপবাবু একথা বললেও, এখন তৃণমূলের “বাংলার গর্ব মমতাকে” পেছনে ফেলে বিজেপির এই কর্মসূচি কতটা সার্থকতা লাভ করে, তার দিকে নজর থাকবে আপামর বঙ্গবাসীর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!