এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > তৃণমূল বিধায়ক হত্যা মামলায় চার্জশিট পেতেই রণমূর্তিতে মুকুল, মমতার ঘুম উড়িয়ে যা বললেন

তৃণমূল বিধায়ক হত্যা মামলায় চার্জশিট পেতেই রণমূর্তিতে মুকুল, মমতার ঘুম উড়িয়ে যা বললেন



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্য পুলিশের বিরুদ্ধে বারবার নিরপেক্ষহীনতার অভিযোগ এনেছে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। আজ শনিবার রানাঘাট আদালতে গত বছর নদীয়ার কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসকে হত্যার মামলায় বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়ের নামে চার্জশিট পেশ করেছে সিআইডি। সিআইডির চার্জশিটে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে বিধায়ক হত্যার ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে। বিধায়ক হত্যা মামলার চার্জশিটে তাঁর নাম আসতেই মুখ্যমন্ত্রীর নামে গর্জে উঠলেন মুকুল রায়। রাজ্য পুলিশ তথা রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরের ভারপ্রাপ্তা মুখ্যমন্ত্রীর নামে বিস্ফোরক বক্তব্য রাখলেন তিনি।

তাঁর বিরুদ্ধে চার্জশিট বেরোবার পর বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায় জানালেন, ” হতেই পারে, কেন নয়? বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কে? চার্জশিটে নাম দিচ্ছে কে? দপ্তরের মন্ত্রী কে? জিজ্ঞাসা করুন এই রাজ্যের পুলিশ মন্ত্রীর নাম কি? তিনি জানেন না এই ঘটনায় কারা যুক্ত? তাঁরই নির্দেশে, তাঁরই অঙ্গুলিহেলনে যদি আমার বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়া হয়, তবে এটা একটা বড় হাস্যকর ব্যাপার। ’’

প্রসঙ্গত গত ২০১৯ সালের ৯ ই ফেব্রুয়ারি সরস্বতী পুজোর ঠিক আগের রাতে নদীয়া জেলার হাঁসখালিতে নিজের বাড়ির সামনেই গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসকে। এই হত্যার মামলায় ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। এরপর গত ২০১৯ সালের ১৪ ই জুন সিআইডি তিনজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়। কিন্তু প্রমাণের অভাবে দুজনকে নিষ্কৃতি দেয়া হয়। তবে এই মামলার এফআইআরে রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার ও বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের নাম সন্দেহভাজনের তালিকায় চলে আসে। যদিও প্রথম চার্জশিটে তাঁদের নাম ছিল না।

আপনার মতামত জানান -

এরপর, চলতি বছরের গত ১৪ ই সেপ্টেম্বর এ বিষয়ে রানাঘাটের আদালতে অতিরিক্ত চার্জশিট দিয়ে ছিল সিআইডি। যেখানে রানাঘাটের বিজেপি বিধায়ক জগন্নাথ সরকারকে অভিযুক্ত করা হয়। সাংসদকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ (খুন) এবং ১২০-বি (অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র) ধারায় অভিযুক্ত করে সিআইডি। সেসময় সিআইডির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যে, বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের বিরুদ্ধেও তদন্ত জারি রয়েছে। এরপর তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসকে হত্যার মামলায় মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা করেছে সিআইডি। আজ শনিবার রানাঘাট আদালতে মোট ৫ জন অভিযুক্তর নামে চার্জশিট দায়ের করা হয়েছে। এই পাঁচজনের মধ্যে আছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে সিআইডির চার্জশিটে বিধায়ক খুনের ঘটনার মূল ষড়যন্ত্রকারী বলে জানানো হয়েছে। চার্জশিটে তাঁর নাম আসার পর মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। এ প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন যে, সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে ৪৪ টি মামলা চলছে। সমস্ত মামলাই লড়বেন বলে জানিয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত, রাজ্য পুলিশ, সিআইডি বিরোধীদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেয় বলে, বারবার অভিযোগ উঠেছে। আজ এই প্রসঙ্গেই মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। রাজ্যের পুলিশ, গোয়েন্দা যে রাজ্যের শাসকদলের অঙ্গুলিহেলনে চলে এমন অভিযোগ বারবার এসেছে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!