এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মন্ত্রীর উপস্থিতিতে দলবদল করিয়েও ধাক্কা তৃণমূলে, ২৪ ঘন্টার মধ্যে বিজেপির ৪ ‘ঘরের ছেলে’ ঘরে

মন্ত্রীর উপস্থিতিতে দলবদল করিয়েও ধাক্কা তৃণমূলে, ২৪ ঘন্টার মধ্যে বিজেপির ৪ ‘ঘরের ছেলে’ ঘরে



এবার শাসকের বিরুদ্ধে বিরোধীর অভিযোগেই সিলমোহর পড়ল বঙ্গ রাজনীতিতে। বর্তমানে রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে দলবদলের হিড়িক। বিরোধীদের অভিযোগ, ভয় দেখিয়ে তাঁদের সদস্যদের দলে টানছে শাসকদল। কিন্তু শাসক তৃনমূলের পক্ষ থেকে সেই অভিযোগকে নস্যাৎ করে উড়িয়ে দিলেও শাসকের চালে এবার ফাঁসল সেই শাসকদলই।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, হাওড়ার পাঁচলার 15 আসনবিশিষ্ট পোলগুস্তিয়া পঞ্চায়েতে এবার তৃনমূল 10 এবং বিজেপি 5 টি আসন পায়। কিন্তু এরপরই গত সোমবার বিজেপির 5 সদস্যের মধ্যে চারজন সনৎ রুইদাস,নন্দদুলাল দাস, বাসুদেব পাল এবং মামনি ভাদুড়ী যোগ দেয় তৃনমূলে। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না,যোগ দিয়ে ফের 24 ঘন্টার মধ্যে নিজেদের পুরোনো দল বিজেপিতে ফিরে আসেন তাঁরা।  কিন্তু কেন? ফিরেই যখন আসবেন তাহলে কেন বিজেপি থেকে এই সদস্যরা যোগ দিয়েছিলেন তৃনমূলে?

এ প্রসঙ্গে গত মঙ্গলবার এই চার বিজেপি সদস্য বলেন, “তৃনমূলের হুমকির জন্যেই দলবদল করেছিলাম। কিন্তু আমরা বিজেপিতেই থাকতে চাই।” এদিকে এই প্রসঙ্গে তৃনমূলকে কটাক্ষ করে জেলা বিজেপি সভাপতি অনুপম মল্লিক বলেন, “তৃনমূল সব জায়গায় দল ভাঙার খেলায় নেমেছে। কিন্তু হাওড়াতে যে সেটি হবে না তা ফের প্রমান হয়ে গেল।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে আগের দিন যোগ দিলেও পরে এইভাবে ফের বিজেপিতে চলে যাওয়ায় চরম অস্বস্তিতে জেলা তৃনমূল কংগ্রেস। এ প্রসঙ্গে জেলা তৃনমূলের সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী অরুপ রায় বলেন, “সোমবার এই চারজন তৃনমূলের পতাকা হাতে নিয়েছিলেন। এখন কেন তাঁরা এরকম করল তা খোঁজ নিয়ে দেখব।” রাজনৈতিক মহলের মতে, দলবদলের থেকেও এবার দলবদলকারী সদস্যরা ফের বিজেপিতে যাওয়ায় মহা বিপাকে তৃনমূল কংগ্রেস। এখন পোলগুস্তিয়ার এই ঘটনা থেকে দল ভাঙানোর ব্যাপারে ভবিষ্যতে আদৌ রাজ্যের শাসকদল সতর্ক হয় কি না সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!