এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বড়সড় আকার নিচ্ছে ‘তিতলি’ – দীঘাতে বিশেষ সতর্কতা জারি করল প্রশাসন

বড়সড় আকার নিচ্ছে ‘তিতলি’ – দীঘাতে বিশেষ সতর্কতা জারি করল প্রশাসন



পুজোর আগেই বাঙালির মুখে দুশ্চিন্তার ছবি। বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপটি শক্তিশালি ঘূর্ণিঝড়ের আকার নিয়েছে। ওড়িশা,পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে আঘাত হানতে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়টি। আবহবিদরা ঘূর্ণিঝড়টির নাম দিয়েছে ‘তিতলি’। ওড়িশা উপকূল থেকে মাত্র ৩০০ কিমি দূরে রয়েছে ঘূর্ণিঝড়টি। তবে ঝড়ের প্রভাবে ইতিমধ্যেই কোলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। উত্তাল দীঘার সমুদ্র সৈকত। পর্যটকদের সমুদ্র নামার ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতা জারি করল প্রশাসন। গভীর সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে মৎসজীবীদেরও। এই নিষেধাজ্ঞা আগামী শুক্রবার অব্দি থাকবে বলে জানানো হয়েছে। তবে সমস্তটাই নির্ভর করছে ‘তিতলি’র গতিবিধির উপর। এমনটাও জানিয়েছে প্রশাসন।

প্রবল নিম্নচাপের কারণে দীঘার সমুদ্র উপকূলে ব্যাপক জলোচ্ছ্বাস তৈরি হয়েছে। যার জেরে এদিন সকাল থেকেই মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি শুরু হয়েছে দীঘায়। দীঘা,শঙ্করপুর,তাজপুরে রেড এলার্ট জারি করেছে প্রশাসন। সমুদ্রের পার্শবর্তী এলাকায় মাইকিং করে সমুদ্রে নামতে নিষেধ করেছে কোস্টাল থানার পুলিশ। কারণ গার্ডওয়াল পেরিয়ে রাস্তায় চলে এসেছে সমুদ্রের জল। তাই গার্ডওয়াল পর্যন্তও যেতে দেওয়া হচ্ছে না পর্যটকদের। সমুদ্রের উপকূলবর্তী এলাকায় ইতিমধ্যেই মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশবাহিনী। উদ্ধারকারী ডুবুরির দলও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এদিকে সমুদ্রে নামা ক্ষেত্রে কড়া নিষেধাজ্ঞা জারির জেরে হতাশ সমুদ্র উপভোগ করতে আসা পর্যটকেরা। যদিও পুজোর মরশুমে ভীড় একটু কম থাকে এই সময়। তবুও যারা এখন উপকূলে রয়েছে,তাদের জন্য এ খবর অত্যন্ত হতাশার।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিকে পুজোর মুখে ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস পেয়ে চিন্তার আকাশ ভেঙে পড়ল রাজ্যবাসীর মাথায়। ঝড়,বৃষ্টির জেরে পুজোর আনন্দই না মাটি হয়ে যায় সেই আশঙ্কায় কপালে ভাঁজ পড়েছে উৎসবমুখর বাঙালির। এমনিতেই আজ সকাল থেকেই কোলকাতার আকাশে মেঘ জমতে শুরু করেছে। দুপুর গড়াতে না গড়াতেই কোলকাতা,দুই ২৪ পরগনা,মেদিনীপুর,ঝাড়গ্রাম দক্ষিণবঙ্গে প্রায় প্রত্যেকটি জেলাতেই বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে। এরকম অবস্থায় নিম্নচাপ সরে যাওয়ার আশায় দিন গুনছে এখন রাজ্যবাসী। আগামী শুক্রবার অব্দি এই বৃষ্টি চলতে পারে,এমনটাই পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!