এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > টিকিটকের পর এবার ব্যান হল পাবজি! প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিলেন নুসরত জাহান

টিকিটকের পর এবার ব্যান হল পাবজি! প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিলেন নুসরত জাহান



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – চীন-ভারত আন্তর্জাতিক সমস্যার পর থেকে দেশজুড়ে চিনা দ্রব্য বয়কটের ডাক দেয় সাধারণ মানুষ। কেন্দ্রীয় সরকারও কিছুদিন আগেই জনপ্রিয়তম চিনা অ্যাপ টিকটকসহ একগুচ্ছ অ্যাপ বন্ধ করে দেয় ভারতের বুকে। এবার আরো একবার চীনকে কোণঠাসা করতে উদ্যত কেন্দ্রীয় সরকার কড়া পদক্ষেপ হিসাবে ভারতের বুকে জনপ্রিয় চীনা গেম অ্যাপ পিইউবিজি সমেত আরও 118 টি চাইনিজ অ্যাপ নিষিদ্ধ করে দিল। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহান।

এর আগেও নুসরত জাহান কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছিলেন যখন টিকটক বন্ধ হয়ে গিয়েছিল ভারত সরকারের সিদ্ধান্তে। তাই নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। এদিন নুসরত জাহান প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদিকে ট্যাগ করে টুইটারের মাধ্যমে কটাক্ষ করে বলেন, “মোদী বাবু GDP বেকাবু। এখন না পাবজিতে রিভাইবাল হবে, না ইকোনমিতে। এবার আমরা কি করব?” এর আগেও টিকটক যখন ব্যান্ড হয়ে গিয়েছিল ভারতের বুকে, তখনও নুসরত জাহান প্রশ্ন তুলেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোরই অনুরূপ টিকটক।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

টিকটক অ্যাপ বন্ধ করে চীনা আগ্রাসন কতটা আটকানো যাবে? অন্যদিকে একুশের বিধানসভার নির্বাচনে এখনো পর্যন্ত বিজেপির পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে কাউকে বেছে নেওয়া যায়নি আর তাই নিয়ে কেন্দ্রীয় গেরুয়া শিবিরকে নুসরত জাহান তীব্র কটাক্ষ করেন টুইটারে। প্রসঙ্গত গত রবিবার পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, আপাতত বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির তরফ থেকে কোন মুখ্যমন্ত্রীর মুখ থাকবে না।

নির্বাচনে যদি বিজেপি জয়লাভ করে, তারপরেই ঠিক হবে পশ্চিমবঙ্গের নতুন মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে। ইতিমধ্যে নুসরত জাহানের মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে চর্চা। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, রাজ্য বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই শাসক শিবির এবং বিরোধী শিবিরের মধ্যে মতানৈক্য তীব্র হচ্ছে। কটাক্ষ এবং প্রতি কটাক্ষের ভিড়ে একে অপরকে কোণঠাসা করতে যে উদ্যত তা নুসরত জাহানের টুইট দেখেই বোঝা যাচ্ছে। তবে আগামী দিনে তৃণমূল সাংসদের এই মন্তব্যকে ঘিরে রাজনৈতিক জল যে অনেকদূর গড়াবে, সে বিষয়ে নিশ্চিত সবাই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!