এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > শুভেন্দুর মুখে ‘ভারত মাতা কি জয়’ সভায় ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি, বাকি কি থাকলো? প্রশ্ন ঘুরছে

শুভেন্দুর মুখে ‘ভারত মাতা কি জয়’ সভায় ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি, বাকি কি থাকলো? প্রশ্ন ঘুরছে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – স্বাভাবিকভাবে বিজেপি নেতাদের মুখ থেকেই শোনা যায় “ভারত মাতা কি জয়” স্লোগান। কিন্তু যে শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে এখন বর্তমানে ব্যাপক জল্পনা তৈরি হয়েছে, এবার নন্দীগ্রাম দিবসের অরাজনৈতিক ব্যানারে অনুষ্ঠিত হওয়া কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে নিজের বক্তব্য শেষে একদম সেই “ভারত মাতা কি জিন্দাবাদ” বলে স্লোগান তুললেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা শুভেন্দু অধিকারী। স্বভাবতই তৃণমূল কংগ্রেসের একজন শীর্ষ নেতার মুখ থেকে এই ধরনের মন্তব্য সামনে আসায় এখন নতুন করে জল্পনা তৈরি হয়েছে বাংলার রাজনৈতিক মহলে।

বলা বাহুল্য, তৃণমূলে সাংগঠনিক দায়িত্ব এবং বেশকিছু রদবদল হওয়ার পর আশা করা হয়েছিল, শুভেন্দু অধিকারী বড় কোনো দায়িত্ব পাবেন। কিন্তু সেভাবে তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়নি। উল্টে তাকে অনেক জায়গা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তার অনুগামীদের। আর এরপর থেকেই দলের সঙ্গে ক্রমশ দূরত্ব বৃদ্ধি করতে দেখা যাচ্ছে শুভেন্দু অধিকারীকে। বিভিন্ন সভায় তিনি উপস্থিত হলেও সেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের নাম বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না।

এমনকি বিভিন্ন সভায় উপস্থিত হয়ে শুভেন্দু অধিকারী ইঙ্গিতপূর্ণ বক্তব্য রাখতে শুরু করেছেন। যার ফলে দলের সঙ্গে তার দূরত্ব ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে দাবি করেছেন একাংশ। আর এমত পরিস্থিতিতে যে নন্দীগ্রামে প্রতিবছর তৃণমূলের প্রতীক নিয়ে নন্দীগ্রাম দিবস অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়, সেখানে শুভেন্দু অধিকারী অরাজনৈতিক ব্যানারে কর্মসূচি করছেন। পৃথকভাবে সভা তৃণমূল কংগ্রেস। তাই এই পরিস্থিতিতে সেই শুভেন্দু অধিকারীর সভায় মাঝেমধ্যেই দর্শকাসনে থেকে জয় শ্রীরাম স্লোগান ওঠা এবং নিজের বক্তব্যের শেষে ভারতমাতা কি জিন্দাবাদ বলে স্লোগান দেওয়ায় শুভেন্দু অধিকারীর অবস্থান নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময়কালে বাংলার রাজনীতিতে প্রাসঙ্গিক হয়ে ওঠে এই জয় শ্রীরাম স্লোগান। যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ব্যারাকপুরের উদ্দেশ্যে যাওয়ার সময় বেশ কিছু যুবক তার কনভয় উদ্দেশ্য করে জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে থাকেন। আর এর পরেই ক্ষিপ্ত হয়ে বাইরে বেরিয়ে এসে এই ব্যাপারে সরব হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার ফলে বাংলার রাজনৈতিক মহলে প্রশ্ন তৈরি হয়, কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জয় শ্রীরাম স্লোগানে আপত্তি জানাচ্ছেন! এত আপত্তি কেন!

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

স্বাভাবিক ভাবেই এরপর থেকে বিজেপির পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে বিভিন্ন পথসভা কিংবা মিটিং-মিছিলে তৃণমূল নেতৃত্বকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করা হয়। আর এবার তৃণমূলের হেভিওয়েট শীর্ষ নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রীর সভায় এই ধরনের জয় শ্রীরাম শ্লোগান ওঠায় নতুন জল্পনার সৃষ্টি হল। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, তাহলে কি শুভেন্দু অধিকারী বিজেপির দিকে পা বাড়িয়ে রাখছেন! আর তাই নিজের অরাজনৈতিক সভা থেকে বক্তব্য শেষে “ভারত মাতা কি জিন্দাবাদ” বলতে দেখা গেল তাকে!

একাংশের মতে, “ভারত মাতা জিন্দাবাদ” বলে দেশের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। এর সঙ্গে রাজনৈতিক জল্পনার কোনো মিল নেই। তবে যে যাই বলুন না কেন, শুভেন্দু অধিকারীর এদিনের অরাজনৈতিক সভা থেকে বেশকিছু দিক উঠে আসতে শুরু করেছে এবং তা নিয়ে যে জল্পনা ক্রমশ বাড়ছে, তা বলাই যায়। সব মিলিয়ে শুভেন্দু অধিকারীর এদিনের সভায় “জয় শ্রীরাম স্লোগান” এবং “ভারত মাতা কি জিন্দাবাদ” স্লোগান আগামী দিনে শুভেন্দুবাবুর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎকে কোথায় নিয়ে গিয়ে দাঁড় করায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!