এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > শুভেন্দুর জন্য বড়সড় বিপদে তার অনুগামীরা? জেনে নিন

শুভেন্দুর জন্য বড়সড় বিপদে তার অনুগামীরা? জেনে নিন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – শুভেন্দু অধিকারী কি করবেন, তৃণমূল কংগ্রেসে থাকবেন, নাকি বিজেপিতে যোগদান করবেন! তা নিয়ে যখন জল্পনা তৈরি হয়েছিল, তখন বিভিন্ন জায়গায় তার অনুগামীরা “দাদার অনুগামী” বলে পোস্টার লাগাতে শুরু করেছিলেন। এমনকি তারা শুভেন্দু অধিকারী যে পথে হাঁটবেন, সেই পথেই যে পা বাড়াবেন, তা বুঝিয়ে দিয়েছিলেন। আর সেই শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে নাম লেখানোর পর তাদের সঙ্গে আর কোনো যোগাযোগ রাখছেন না বলে অভিযোগ করতে শুরু করলেন একাংশ। যার ফলে মুর্শিদাবাদ জেলায় সেই শুভেন্দু অধিকারীর বেশকিছু অনুগামী এখন চরমভাবে অসুবিধের মুখে পড়েছেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, একসময় মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী।

স্বাভাবিকভাবেই তিনি বিজেপিতে যোগদান করার পর তার পথ ধরে অনেকেই তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করবে বলে মনে করা হয়েছিল। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারী যখন তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়াতে শুরু করেছিলেন, তখন এই জেলার অনেকেই তার পোস্টার লাগিয়ে তার প্রচার করতে শুরু করেছিলেন। কিন্তু এখন শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদান করার পর তার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলেও, তিনি ফোন ধরছেন না বলে অভিযোগ করতে শুরু করলেন মুর্শিদাবাদ জেলার অনেকে। যার ফলে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে গোটা রাজ্যজুড়ে।

বিশেষ সূত্র মারফত খবর, মুর্শিদাবাদ জেলায় শুভেন্দু অধিকারীর বহু অনুগামীরা গত দুই সপ্তাহ ধরে তাকে ফোন করেও কোনো উত্তর পাচ্ছেন না। এমনকি মেসেজ করলেও তার কোনো উত্তর আসছে না। এদিকে শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামীরা তাকে ফোন করে কি করবেন বলে প্রশ্ন করলে জেলার রাজনীতিতে তিনি নাক গলাবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। স্বাভাবিক ভাবেই কেন অনুগামীদের এখন শুভেন্দুবাবু গুরুত্ব দিচ্ছেন না, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, তাহলে কি শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা পেয়ে তার অনুগামীদের ভুলে গেলেন!


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এতদিন তো তার রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে যখন জল্পনা তৈরি হয়েছিল, তখন এই অনুগামীরা তার হয়ে ব্যাপক প্রচার করেছিলেন। সে ক্ষেত্রে তিনি বিজেপিতে যাওয়ার পর কেন আর অনুগামীদের খোঁজ খবর রাখছেন না! এখন সেই সমস্ত অনুগামীদের কী হবে, তা নিয়ে অনেকেই হতাশা প্রকাশ করতে শুরু করেছেন। অনেকে বলছেন, এটাই হচ্ছে নেতার পরিচয়। তার জন্য জান-প্রাণ লাগিয়ে দিয়ে কাজ করা হল, কিন্তু এখন তিনি বিজেপিতে গিয়ে সকলকে ভুলে গিয়েছেন। যার ফলে সেই শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামীরা না পারছেন বিজেপিতে যোগদান করতে, না পারছেন তৃণমূল কংগ্রেসে স্বাচ্ছন্দ ভাবে থাকতে। স্বাভাবিকভাবেই গোটা ঘটনায় শুভেন্দু অধিকারীর ভূমিকা নিয়ে ব্যাপক প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

বলা বাহুল্য, যখন শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল, তখন দুইবার অনুগামীদের ডাকে সাড়া দিয়ে তিনি মুর্শিদাবাদ জেলায় গিয়েছিলেন। আর তার বিজেপিতে যোগদানের পর তিনি কেন এখন সেই সমস্ত অনুগামীদের কথা শুনছেন না, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন। শুভেন্দু অধিকারী যেভাবে ফোন ধরছেন না বা মেসেজের কোনো উত্তর দিচ্ছে না, তাতে মুর্শিদাবাদ জেলায় তার অনুগামীরা এখন বড় সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। কি করবেন তারা, কিভাবে নিজেদের রাজনৈতিক গতিপথকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন! এখন সেটাই বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। সব মিলিয়ে দাদার উত্তরের অপেক্ষা করেন অনুগামীরা, নাকি নিজেদের মত করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!