এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > শুভেন্দুকে তৃণমূলেরই কয়েকজন বিজেপিতে পাঠাতে চান? ছেলের অভিমান নিয়ে ক্ষোভ শিশিরের গলায়!

শুভেন্দুকে তৃণমূলেরই কয়েকজন বিজেপিতে পাঠাতে চান? ছেলের অভিমান নিয়ে ক্ষোভ শিশিরের গলায়!



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – ছেলে যখন দলের সাথে দূরত্ব বাড়াতে শুরু করেছে, তখন জেলা তৃণমূল সভাপতি হিসেবে নিজের বক্তব্যে অবিচল ছিলেন পিতা শিশির অধিকারী। ছেলে অরাজনৈতিক সভায় যখন যোগ দিচ্ছেন তখনও দলের পক্ষে বক্তব্য রাখতে দেখা গিয়েছিল তাকে। প্রকাশ্যে বাবা এবং দলের প্রতি আনুগত্য মনোভাব পোষণ করে শিশির অধিকারী বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল কংগ্রেসে আছেন এবং থাকবেন।

কিন্তু কিছুদিন আগেই শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। আর তারপর থেকেই তিনি দলত্যাগ করতে পারেন বলে জানা যাচ্ছে। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারীকে এই সময়ে দলের প্রয়োজন এই দাবি জানাচ্ছেন তৃণমূলের সকল কর্মী সমর্থকরা। তবে তা সত্ত্বেও কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায়ের মত তৃণমূল নেতারা প্রতিমুহূর্তে শুভেন্দু অধিকারীকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছেন।

আর এই পরিস্থিতিতে অস্বস্তি বাড়ছে তৃণমূল নেতৃত্বের। তবে এতদিন শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে নানা মহলে জল্পনা চললেও, এই ব্যাপারে নীরব থাকা তার পিতা তথা পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি এবার অবশেষে মুখ খুললেন। যেখানে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় শুভেন্দু অধিকারী ষকে নিয়ে একের পর এক কটাক্ষ করার তীব্র প্রতিবাদ জানালেন তিনি।

সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “দলের কয়েকজন ওকে ঠেলে বিজেপিতে পাঠাতে চায়। কল্যান ঠিক করছেন না।” অর্থাৎ শিশির অধিকারী এবার সরাসরি মুখ খুলে বুঝিয়ে দিতে চাইলেন যে, তৃণমূলের একাংশ তার ছেলেকে নিয়ে যে ধরনের মন্তব্য করছে তা তিনি কোনোমতেই মেনে নেবেন না।

প্রসঙ্গত, শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে যখন জল্পনা তৈরি হয়েছিল, তখন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেছিলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় না থাকলে পৌরসভার বাইরে আলু বিক্রি করতিস রে, আলু বিক্রি করতিস‌।” আর এরপর থেকেই জল্পনা ক্রমশ দীর্ঘ হতে শুরু করেছিল। তবে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় যখন এই সমস্ত মন্তব্য করেছিলেন, তখন তার বিরুদ্ধে মন্তব্য করে পাল্টা কোনো প্রতিক্রিয়া দেননি শুভেন্দু অধিকারীর পিতা শিশির অধিকারী।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর যখন আবার তৃণমূলের একাংশ তাকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছেন, তখন অবশেষে মুখ খুললেন শিশির অধিকারী। যেখানে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক করছেন না বলে বুঝিয়ে দিলেন তিনি। পাশাপাশি শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলেও জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন তার পিতা শিশির অধিকারী।

তবে শুভেন্দুবাবু যদি বিজেপিতে যোগ দেয়, তার প্রধান কারণ কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায়ের মত নেতাদের তার বিরোধিতা করার মন্তব্য বলে শিশির অধিকারী মন্তব্য থেকে পরিষ্কার বলেই দাবি একাংশের। সব মিলিয়ে এবার অধিকারী পরিবারের তরফ থেকেও শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে তৃণমূলের একাংশের করা মন্তব্যের কড়া জবাব দিলেন শিশির অধিকারী। যাকে নিয়ে ক্রমশ টালমাটাল বঙ্গ রাজনীতি। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!