এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত কংগ্রেস সভাপতি,শুভেন্দুর ভবিষ্যৎবাণী কি সত্যি হতে চলেছে,জল্পনা তুঙ্গে

অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত কংগ্রেস সভাপতি,শুভেন্দুর ভবিষ্যৎবাণী কি সত্যি হতে চলেছে,জল্পনা তুঙ্গে



পঞ্চায়েত ভোটের মরশুম থেকেই গোটা রাজ্যের কিছু কিছু এলাকায় দেখা মিলেছে, বেশ কিছু বিরোধীশিবির কর্তা তথা প্রার্থীরা এমনকি কাউন্সিলারাও নিজেদের দল ছেড়ে তৃণমূলের উন্নয়নের স্রোতে নাম লিখিয়েছেন। এবং পঞ্চায়েত ভোট পর্ব মিটে গেলো এই ছবি একইরকমভাবে অব্যাহত আছে। এই দৌড়ে পিছিয়ে নেই রাজ্যের হাতপার্টিও। একই লাইনে দাঁড়িয়ে আছে কংগ্রেসের শক্তিঘাঁটি মুর্শিদাবাদের ফারাক্কা এবং নয়দা কেন্দ্রের বিধায়করা। এমনটাই খবর পাওয়া যাচ্ছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

সম্প্রতি মুর্শিদাবাদ জেলার কংগ্রেস আধিকারিকদের গরজে আয়োজন করা হয়েছিলো ইফতার পার্টি। এখানে উপস্থিত ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি থেকে শুরু করে সাংসদ অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় সহ আরো অনেকে। তবে দেখা মিলল না ওই জেলারই কংগ্রেসের মুখপাত্র আবু তাহের খানের। তাঁর অপ্রত্যাশিত অনুপস্থিতি স্বাভাবিকভাবেই দ্বন্দ্বে ফেলে দিয়েছিলো উপস্থিত কংগ্রেস নেতৃত্বদের। জল্পনার পারদ চড়তে থাকে তার গরহাজির নিয়ে। তাঁর অনুপস্থিতি নিয়ে প্রকাশ্য মন্তব্যও করলেন অধীরবাবু। সংশয় প্রকাশ করে বলেন যে, জেলা সভাপতি স্বয়ং ইফতার পার্টি করার প্রস্তাব দিয়ে নিজে কেন উপস্থিত নেই,এর কারণ তিনিও জানেন না। এই নিয়ে কংগ্রেসের দলীয় অন্দরেও তিনি আলোচনা করেন। বিষয়টিকে সঠিকভাবে মেনে নিচ্ছে না কংগ্রেস আধিকারিকরা।

বেশকিছুদিন আগে তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা শুভেন্দু অধিকারী কংগ্রেসের প্রাণকেন্দ্র মুর্শিদাবাদের মাটিতে দাঁড়িয়েই জেলা থেকে কংগ্রেসকে ধুলিসাৎ করার আওয়াজ তুলেছিলেন। চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে অধীরবাবুকে জানিয়েছিলেন যে মুর্শিদাবাদে কংগ্রেসের নামগন্ধ থাকবে না আর। অধীরবাবুর পাশে আর থাকবে না কেউ। এই কথাই কি সত্যি হতে চলেছে এবার? তীব্র উদ্বেগে রয়েছে কংগ্রেস শিবির। পঞ্চায়েতের ফলপ্রকাশের পর কংগ্রেসের তিনজন বিধায়ক দল ছাড়তে পারেন বলে একটা জল্পনাও শুরু হয়েছিলো। সমস্যা থেকে বেরোনোর পথ খুঁজে না পেয়ে আবদুল মান্নান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখেছিলেন দলবদলের ব্যাপারে। নেত্রীও নাকি তাকে আশ্বস্ত করেছিলেন যে কংগ্রেসের দলের একতা তিনি ভাঙবেন না। এরকম চাপানউতোর পরিস্থিতি কংগ্রেসের দলীয় প্রার্থীরা কতটা তাঁদের সঙ্গে থাকে সেটা নিয়েই দুশ্চিন্তা বাড়ছে রাজ্যকংগ্রেস গড়ে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!