এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এবার ‘ফ্লেক্স’ বিতর্কে জড়ালেন শুভেন্দু অধিকারী! প্রকাশ্যেই ক্ষোভ উগড়ে দিলেন তৃণমূল নেত্রী!

এবার ‘ফ্লেক্স’ বিতর্কে জড়ালেন শুভেন্দু অধিকারী! প্রকাশ্যেই ক্ষোভ উগড়ে দিলেন তৃণমূল নেত্রী!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –রাজ্য রাজনীতিতে এখন চর্চার চর্চিত কেন্দ্রে রয়েছেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতা তথা রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বিভিন্ন সভা সমিতিতে অরাজনৈতিক ভাবে দেখা যাচ্ছে তাকে। কোথাও তৃণমূলের ফ্লেক্স, ফেস্টুন নেই। কিন্তু তার সেই সভায় তার ছবি দিয়ে “দাদার অনুগামী” পোস্টার পড়তে দেখা যাচ্ছে। যা নিয়ে তৃণমূলের অনেকেই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন। যে শুভেন্দু অধিকারী রাজ্যের মন্ত্রী দলের শীর্ষ নেতা, সেক্ষেত্রে তার সভায় কেন দলের প্রতীক বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোনো ছবি নেই! স্বাভাবিকভাবেই শুভেন্দু অধিকারীর এহেন আচরণে দিনকে দিন জল্পনা বাড়তে শুরু করেছে।

জানা গেছে, রবিবার সকালে সুতাহাটার রামচন্দ্রপুরে একটি পথবাতি উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ছিল। যেখানে সেই উদ্বোধনে ধন্যবাদ জ্ঞাপন ফ্লেক্স পড়তে দেখা যায়। যে ফ্লেক্সে লেখা ছিল, “রামচন্দ্রপুর বাস স্টপ হইতে রামচন্দ্র পুর ইদগা পর্যন্ত এলাকা আলোকিত করার জন্য মাননীয় মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী মহাশয়কে ধন্যবাদ জানাই।” কিন্তু শুভেন্দু অধিকারীকে ধন্যবাদ জানানো নিয়েই এবার প্রশ্ন তুলে দিলেন সুতাহাটা পঞ্চায়েত সমিতির চেয়ারম্যান আঞ্জুমা বিবি। যাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। তাহলে কি সরাসরি এবার দলের নেত্রীর সঙ্গে সংঘাত বেধে গেল তৃণমূলের শুভেন্দু অধিকারীর? পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল থেকে জটিলতর হতে শুরু করল এবার?

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, এই ফ্লেক্সে কোনো প্রচারকের নাম না থাকলেও শুধুমাত্র রয়েছে সুতাহাটা ব্লক তৃণমূল সভাপতি অমিয় দাসের নাম। বস্তুত, এই অমিয়বাবু জেলা রাজনীতিতে শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামী বলে পরিচিত। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারীকে ধন্যবাদ জানিয়ে এই ফ্লেক্স টাঙ্গানো হলেও, পরবর্তীতে সেই ফ্লেক্সে অমিয়বাবুর নাম কেটে অঞ্জুমাদেবীর নামে তা লাগানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিন এই প্রসঙ্গে অঞ্জুমাদেবী বলেন, “আমি কারও অনুগামী নই। আমি তৃণমূলের সৈনিক। আমার নাম দিয়ে কে বা কারা ধন্যবাদ জ্ঞাপন ফ্লেক্স লাগিয়েছে, জানি না। অনুষ্ঠানে আমি নিমন্ত্রিত ছিলাম না। আমার নাম ব্যবহার করে এই জাতীয় ঘটনা ঘটায় আমার আত্মসম্মানে লেগেছে।” যদিও বা এই ব্যাপারে সুতাহাটা ব্লকের তৃণমূল সভাপতি অমিয় দাস বলেন, “ধন্যবাদ জ্ঞাপন ফ্লেক্সটি আমি দেখেছি‌। কে বা কারা তা লাগিয়েছে আমার জানা নেই। কারণ এখন কেউ কিছু কাজ করলে দলের অনুমতি না নিয়েই করছেন।”

 

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শুভেন্দু অধিকারী বর্তমানে রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনার কেন্দ্রে রয়েছে। নেত্রী বা দলের নাম করছেন না তিনি। তার অনুগামীরা “দাদার অনুগামী” বলে বিভিন্ন জায়গায় পোস্টার টাঙাতে শুরু করেছেন। যার ফলে অস্বস্তি বাড়ছে তৃণমূল কংগ্রেসের। আর সেই শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে পথবাতি উদ্বোধনে ফ্লেক্স টাঙানোকে কেন্দ্র করে চরম বিতর্ক তৈরি হল। যার ফলে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে চলে এল বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এখন এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শাসকদল যে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়ল, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!