এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > শুভেন্দুর হাত ধরে তৃণমূলে এলেও নতুন পরিস্থিতিতে মমতার সঙ্গেই থাকছেন দলবদলুরা? বাড়ছে জল্পনা

শুভেন্দুর হাত ধরে তৃণমূলে এলেও নতুন পরিস্থিতিতে মমতার সঙ্গেই থাকছেন দলবদলুরা? বাড়ছে জল্পনা



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  মালদহ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে অন্য দল ছেড়ে তৃণমূলে এসেছিলেন অনেকে। এদের মধ্যে কেউ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান হয়েছিলেন, কেউ হয়েছিলেন পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ, কেউ বা দলের পদে ছিলেন। সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেবার পর, তিনি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন এমন জল্পনা বাড়ছে রাজ্যজুড়ে। সেই পরিস্থিতিতে তাঁরা নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করলেন।

প্রসঙ্গত, মালদহ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক হিসেবে শুভেন্দু অধিকারী বেশ কয়েক বছর ছিলেন। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তাঁর চেষ্টায় মালদহ জেলায় তৃণমূলের ব্যাপক সাফল্য এসেছিল। মালদহ জেলার ১৪৬ টি গ্রাম পঞ্চায়েত, ১৫ টি পঞ্চায়েত সমিতির বেশিরভাগ তৃণমূলের হাতে আসে। মালদহ জেলা পরিষদও তৃণমূলের হাতে আসে। এই সময়ে ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের বিভিন্ন পদাধিকারীর নির্বাচনের বিষয়ে বিশেষ ভূমিকা ছিল শুভেন্দু অধিকারীর। এবার, তাঁর মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর পঞ্চায়েতের এই পদাধিকারীরা ও জনপ্রতিনিধিরা নিজেদের অবস্থান নিয়ে দোটানায় পড়ে গিয়েছিলেন। কোনপথে তাঁরা যাবেন? তা নিয়ে দোটানায় ছিলেন তাঁরা।

শেষ পর্যন্ত তাঁরা নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করতে গতকাল শনিবার মালদহের কালিয়াচক ২ ব্লকে বিশেষ বৈঠক করলেন তৃণমূল পরিচালিত ব্লকের সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত প্রধান, পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য, কর্মাধ্যক্ষ, জেলা পরিষদ সদস্য, জেলা নেতৃত্বের বেশ অংশ। গতকালের এই বৈঠকে তাঁরা জানালেন যে, শুভেন্দু অধিকারী নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আছেন তাঁরা। তাঁদের কথায়, ” দাদা নয়, দিদির (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) সঙ্গেই রয়েছি আমরা, দিদির সঙ্গেই থাকব।’’ তাঁরা যে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আছেন, সেই বার্তা দিতে গতকাল কালিয়াচকের তিনটি ব্লকে যুব তৃণমূল নেতৃত্ব মোটরসাইকেল ৱ্যালির আয়োজন করে।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

গতকাল মালদহ জেলার কালিয়াচক ২ ব্লকের ৯ টি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি, কর্মাধ্যক্ষ, সদস্য, জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ, সদস্যরা দুপুরে পঞ্চায়েত সমিতির সভা কক্ষে বৈঠকের আয়োজন করেন। এই বৈঠকের মূল উদ্যোক্তা তৃণমূল জেলা কমিটির সহ সভাপতি ও সেইসঙ্গে জেলা তৃনমূল সংখ্যালঘু সেলের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম। বৈঠকে জেলার সাধারণ সম্পাদক দ্বিজেন মণ্ডল ও আসাদুল আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

গতকালের এই বৈঠকে জেলা তৃনমূল সংখ্যালঘু সেলের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানালেন, ” কালিয়াচক ২ ব্লকের ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের জনপ্রতিনিধিদের অবস্থান জানিয়ে দিতেই বৈঠক ছিল। সিদ্ধান্ত হয়েছে, দাদা নয়, আমরা দিদির সঙ্গেই আছি, থাকবও। পাশাপাশি সিদ্ধান্ত হয়েছে, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দল যাকে প্রার্থী করবে তার হয়েই আমরা প্রচারে নামব।”

এরপর, তাঁরা যে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেই আছেন, তা সাধারণ মানুষকে বোঝাতে কালিয়াচকের তিনটি ব্লকের যুব তৃণমূল কর্মীরা কালিয়াচকের রামনগর থেকে শাহবাজপুর পর্যন্ত প্রায় ৮ কিমি দীর্ঘ বাইক মিছিল করলেন। এ প্রসঙ্গে কালিয়াচক ৩ ব্লক যুব তৃণমূল সভাপতি অসীম বিশ্বাস জানালেন যে, তাঁদের এলাকার সকলেই মুখ্যমন্ত্রীর পাশে আছেন। তিনটি ব্লকের যুব তৃণমূল কর্মীরা হাতে হাত রেখে তার শপথ নিয়েছেন।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!