এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > শুভেন্দু নয়, মেদিনীপুর এখনও মমতার সঙ্গেই প্রমানে মরিয়া তৃণমূল প্রচারে ঝড় তুলতে শুরু করল

শুভেন্দু নয়, মেদিনীপুর এখনও মমতার সঙ্গেই প্রমানে মরিয়া তৃণমূল প্রচারে ঝড় তুলতে শুরু করল



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গত শুক্রবার মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী, জল্পনা বাড়ছে তাঁর দল বদলের। এই পরিস্থিতিতে আগামী ৭ ই ডিসেম্বর মেদিনীপুরে সভা করতে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর এই জনসভাকে ঘিরে জোরদার প্রচার শুরু করল তৃণমূল। শাসক দল তৃণমূলকে এটা প্রমাণ করতে হবে যে, মেদিনীপুর শুভেন্দু অধিকারি নয়, এখনো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেই আছে। জমকালো ফেস্টুনে, নতুন স্লোগানে শুরু হলো মুখ্যমন্ত্রীর জনসভার জোরদার প্রচার।

মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী, তাঁর দল ছাড়ার জল্পনা বাড়ছে। এদিকে দলের মধ্যে দলের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করছেন দলের একাধিক হেভিওয়েট। এই পরিস্থিতিতে শুভেন্দু অধিকারীর গড় মেদিনীপুরে সভা করতে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী ৭ ই ডিসেম্বর রয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর সভা। পর্যবেক্ষকেরা জানাচ্ছেন, শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছেড়ে দিলে, তার একটা বিরাট প্রভাব পড়বে উভয় মেদিনীপুর জেলাতেই। কারণ, দুটি জেলাতেই শুভেন্দু অধিকারীর জনপ্রিয়তা ব্যাপক।

দীর্ঘদিন ধরেই দলহীন জনসংযোগ চালাচ্ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। এখনো বিভিন্ন অরাজনৈতিক কর্মসূচিতে বারবার ছুটে যেতে দেখা যাচ্ছে তাঁকে। তিনি নিজেকে অবিভক্ত মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র হিসেবে পরিচিত করছেন। তাঁর অনুগামীরা যথেষ্ট সক্রিয় উভয় মেদিনীপুরেই। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল এই বার্তা দিতে চায় যে, শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে নয় মেদিনীপুর আছে সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেই।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল দলের কাছে এলো নতুন স্লোগান। যা হলো ‘ মমতার সাথে মেদিনীপুর ‘ – এই শ্লোগানকে সামনে রেখে প্রচার চালাতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই স্লোগান ছেড়ে অন্য স্লোগান ব্যবহারে নিষেধ করা হলো। বিভিন্ন এলাকায় পাঠানো হলো এই গ্লোগান লেখা ফেস্টুন। সূত্রের খবর, এই পরিকল্পনার মূল দায়িত্বে আছেন ভোট কুশলী পিকে ও তারা আইপ্যাক টিম। ভোট কুশলী পিকে ও তার টিমের পক্ষ থেকেই এই শ্লোগান বেঁধে দেওয়া হয়েছে। তৃণমূলের নেতাকর্মীরা জানান যে, এরকম ধরনের জমকালো ফেস্টুন সামনে রেখে মুখ্যমন্ত্রীর জনসবার প্রচার ইতিপূর্বে কখনো দেখা যায়নি। তবে অনেকেই জানিয়েছেন যে, গত ২০১৯ সালে খড়গপুর বিধানসভা উপ নির্বাচনের প্রচারের সময় এরকম ধরণের ফেস্টুন ব্যবহার করা হয়েছিল।

এ প্রসঙ্গে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি অজিত মাইতি জানালেন যে, রাজ্য নেতৃত্বের নির্দেশ মেনে মুখ্যমন্ত্রীর জনসভার সমর্থনের প্রচার অভিযান চালানো হচ্ছে। এদিকে গত রবিবার সন্ধ্যাবেলায় নতুন ফেস্টুন জেলায় এসে পৌঁছেছে। সেদিনই ঠিক করা হয়েছিল যে, গত সোমবার থেকেই জেলার বিভিন্ন বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর জনসভা ‘মেদিনীপুর চলো’র সমর্থনে মিছিল বের করা হবে এরপর জেলার ১৫ টি বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের মিছিল বের হলো। মিছিলের সামনে ছিল এই ফেস্টুন। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি অজিত মাইতি আরও জানালেন, খুব কম সময়ের মধ্যে সোমবারের মিছিলের আয়োজন হয়েছে। কর্মী-সমর্থকদের উপস্থিতিই বুঝিয়ে দিয়েছে, মেদিনীপুর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেই রয়েছে।’’

এদিকে শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেবার পর পশ্চিম মেদিনীপুরে গিয়েছিলেন তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী। যেখানে গিয়ে তিনি স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আন্দোলনের সঙ্গে মেদিনীপুরের একটা পুরনো যোগ রয়েছে। এবার মেদিনীপুরে সভা করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং। তাঁর সফরকে সামনে রেখে শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামীদের বিশেষ বার্তা দিতে চাইছে শাসকদল তৃণমূল। তৃণমূল চাইছে, মুখ্যমন্ত্রীর জনসভার সমর্থনে প্রচারের ঝড় তুলে দিতে। কারণ, তৃণমূলকে এটা প্রমাণ করতেই হবে শুভেন্দু অধিকারী নয়, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেই আছে সকলে।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!