এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > শুভেন্দুই ঠিক করবেন একুশের ভোটে বাংলার কুর্সিতে কে? ১০০-এর বেশি আসনে হবে অধিকারী ম্যাজিক?

শুভেন্দুই ঠিক করবেন একুশের ভোটে বাংলার কুর্সিতে কে? ১০০-এর বেশি আসনে হবে অধিকারী ম্যাজিক?



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – মঙ্গলবারের বৈঠকের পর যেখানে মনে করা হচ্ছিল সমস্যা নিয়ে গেছে, সেখানে সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারীর সৌগত রায়কে পাঠানো মেসেজ ঘিরে নন্দীগ্রামের নেতার পরবর্তী পদক্ষেপ ঘিরে জল্পনা শুরু হয়েছে। জানা গেছে, শুভেন্দু এক হোয়াটস অ্যাপ মেসেজে সৌগত রায়কে জানিয়েছেন, ‘একসঙ্গে কাজ করা সম্ভব নয়’! আর এই কথার পরই জল্পনা শুরু হতে থাকে যে, তাহলে কি শুভেন্দু বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন, নাকি অন্য কোনও সিদ্ধান্তের পথে যাচ্ছেন।

দেখতে গেলে মেদিনীপুর ছাড়াও মালদা, মুর্শিদাবাদ, দক্ষিণ দিনাজপুর, হুগলি, হাওড়ার বহু এলাকাতে শুভেন্দু অধিকারীর প্রভাব রয়েছে। সেখানে জঙ্গলমহলেও তাঁর যথেষ্ট পরিচিতি রয়েছে বলেও জানা গেছে। এমন পরিস্থিতিতে অনেকেরই অভিমত যে, মমতার প্রতিনিধি হয়ে গেলেও, বাংলার একাধিক জেলায় শুভেন্দু অধিকারী স্বতন্ত্র ভাবে তাঁর নিজের প্রভাব বিস্তার করেছেন।

সেখানে বহু দুঃস্থ , দুর্বল ,দরিদ্র মানুষের ‘নেতা’ হিসেবে তাঁকে তাদের পাশে থাকতে দেখা গেছে। আর সেই জায়গা থেকেই তাঁর একটা বড় ‘অনুগামী’র সংখ্যা তৈরি হয়েছে বলেই অনুমান করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাঁদের কথায়, একদিকে যেমন তৃণমূলের ভোটব্যাঙ্ক নিয়ন্ত্রণের ছক প্রায় প্রস্তুতির দিকে, অন্যদিকে তেমনই বিজেপির ভোটব্যাঙ্ক দখলের প্রক্রিয়াও তৈরি হয়ে গেছে।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এর মাঝে বাংলার রাজনীতিতে একাই খবরের শিরোনামে উঠে আসছে শুভেন্দু অধিকারীর নাম। বাংলায় একাধিক জেলার বহু এলাকা যেমন এক একটি পার্টির দখলে থাকে, সেই সমস্ত এলাকায় এখন শুভেন্দু ম্যাজিক কাজ করছে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই তাঁদের মতে, ২৯৪ আসনের বাংলা বিধানসভা ভোটে শুভেন্দু অধিকারী একাই ১১০ টি আসন এনে দিতে পারেন। তাই বিধানসভা নির্বাচনের পর বাংলায় কোন ক্ষমতা শাসন করবে তা অনেকটাই যে শুভেন্দু অধিকারী নির্ভরশীল, সেটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শুভেন্দু অধিকারীকে দলে রাখা নিয়ে মঙ্গলবার রাতে উত্তর কলকাতার শ্যামবাজারের কাছে একটি বাড়িতে ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে দেখা যায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, শুভেন্দু অধিকারী ছাড়াও তৃণমূলের দুই সাংসদ সৌগত এবং সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

সেখানে বৈঠকের তাৎপর্য বাড়িয়ে সেখানে উপস্থিত থাকতে দেখা যায় তৃণমূলের ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরকেও। আর সেখানে শুভেন্দু অধিকারী যে আগে বলেছিলেন তিনি একজনকেই দেখে দল করেন, সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন না থাকলেও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে ফোন করে তাঁর সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীর কথা বলিয়ে দিয়েছেন বলেও জানা গেছে।

বস্তুত, এদিনের বৈঠকের পর সৌগত রায় জানান, ‘‘সমস্ত সমস্যা মিটে গিয়েছে। শুভেন্দু জানিয়েছে, ও দল ছাড়ছে না। বিধায়ক পদও ছাড়ছে না। বাকি শুভেন্দুই পরে জানাবে।’’ অন্যদিকে, শুভেন্দুর বাবা তথা তৃণমূল সাংসদ শিশির অধিকারীও একই কথা বলেছেন। তাঁর কথায়, ‘‘সমস্যা ছিল। তবে সমস্যা মিটে গেলে ভাল। তাতে দলের ভাল হবে।’’ যদিও মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত এ ব্যাপারে শুভেন্দুর কোনও বক্তব্য জানা না গেলেও সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারীর সৌগত রায়কে পাঠানো মেসেজ ঘিরে পরবর্তী পদক্ষেপ ঘিরে জল্পনা শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!