এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > ডেঙ্গু নিয়ে রাজ্যের রিপোর্ট পেশ আদালতে, ‘চোখ কপালে’ সবার

ডেঙ্গু নিয়ে রাজ্যের রিপোর্ট পেশ আদালতে, ‘চোখ কপালে’ সবার



ডেঙ্গু নিয়ে রাজ্য সরকারের রিপোর্ট আদালতে জমা পড়ল। গতকাল স্বাস্থ্য অধিকর্তা বিশ্বরঞ্জন শতপথী কলকাতা হাইকোর্টে তা জমা দেন, আর সেই রিপোর্ট খুলতেই চোখ কপালে উঠেছে বঙ্গবাসীর। সেই রিপোর্টে পাওয়া তথ্য –

১. ৯ নভেম্বর দুপুরে রিপোর্ট জমা দেওয়ার সময় পর্যন্ত রাজ্যে ডেঙ্গিতে মৃতের সংখ্যা ১৯
২. গত ৩৫ দিনে রাজ্যে ডেঙ্গুতে এক জনও মারা যাননি
৩. সরকারি হাসপাতালে এখনও পর্যন্ত ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে
৪. বেসরকারি হাসপাতাল থেকে ২৭ জনের নাম এসেছে (যা মানা হচ্ছে না, পরীক্ষা করতে হবে)
৫. এখনো পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮,১৩৫ জন
৬. মৃতের সংখ্যা না বাড়লেও ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ৮ হাজারেরও বেশি (৪ অক্টোবর কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকে রাজ্য সরকার যে রিপোর্ট পাঠিয়েছিল, তার থেকে)
৭. ডেঙ্গুর বাড়বাড়ন্তের জন্য আবহাওয়ার বারবার পরিবর্তন দায়ী
৮. রাজ্যের অনেক বাসিন্দা অন্যত্র বেড়াতে গিয়ে সেখান থেকে ‘ডেঙ্গুর’ ভাইরাস নিয়ে এসেছেন
৯. ডেঙ্গুর পরিচিত দুই ভাইরাস ডেঙ্গ-১ ও ডেঙ্গ-৩-এর বদলে নতুন ধরনের দু’টি ভাইরাস ডেঙ্গ-২ ও ডেঙ্গ-৪-এ রাজ্যের মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন
১০. বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও কেন্দ্রের নির্দেশিকা মেনে ২৪ ঘণ্টা নজরদারি চলছে সরকারি হাসপাতালে
১১. সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত মশাবাহিত রোগ নিয়ন্ত্রণে ছিল
১২. বছরের গোড়া থেকে মুখ্যমন্ত্রী, মুখ্যসচিব মশাবাহিত রোগ নিয়ে বৈঠক করেছেন স্বাস্থ্য দফতর এবং পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের কর্তাদের সঙ্গে
১৩. পুরসভাগুলিকে বলা হয়েছে প্রতিদিন মশার লার্ভা মারার কাজ করতে
১৪. ডেঙ্গু প্রতিরোধে নাগরিকদের সচেতন করা হচ্ছে
১৫. রাজ্যে রক্ত বা প্লেটলেটের অভাব নেই

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!