এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বড়সড় ধাক্কা রাজ্য সরকারের – ‘জোড়’ করতে গিয়ে বড় ক্ষতিপূরণ গুনতে হবে এবার!

বড়সড় ধাক্কা রাজ্য সরকারের – ‘জোড়’ করতে গিয়ে বড় ক্ষতিপূরণ গুনতে হবে এবার!



লোকসভা নির্বাচনের মুখে বড়সড় ধাক্কা খেল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বড়সড় ক্ষতিপূরণ তো গুনতে হবেই – পাশাপাশি লোকসভা নির্বাচনের মুখে দেশের সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে রাজ্যে সরকারের ‘মানসিকতা’ নিয়েও বড়সড় প্রশ্ন উঠে গেল আমজনতার মধ্যে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট মহল। গত ১৫ ই ফেব্রুয়ারী পরিচালক অনীক দত্তের ‘ভবিষ্যতের ভূত’ ছবিটি মুক্তি পায়। কিন্তু, আশ্চর্যজনকভাবে ১৬ ই ফেব্রুয়ারী থেকেই ছবিটির প্রদর্শন বন্ধ করে দেওয়া হয় শহরের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে।

কিন্তু, কি কারণে এই ছবির প্রদর্শন বন্ধ হয়ে গেল – তা নিয়ে সদর্থক উত্তর পাওয়া যায় না। পরিচালক অনীক দত্ত জানান হল মালিকেরা জানিয়েছেন, শহরের প্রায় সমস্ত সিঙ্গল স্ক্রিন আর মাল্টিপ্লেক্স থেকে ছবিটি তুলে নেওয়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ‘উপর মহল’ থেকে। আর এরপরেই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন ছবির সঙ্গে যুক্ত কলা-কুশলীরা, টলি-পাড়াও বিক্ষোভে শামিল হন। পরিচালক অনীক দত্ত জানান, তিনি কিছুদিন আগেই কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে বর্তমান পরিস্থিতিতে কিভাবে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সব কিছুর ‘মুখ’ হয়ে উঠছেন – তা দর্শকদের জানান।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এরপরেই তাঁর পরিচালিত ছবিটি বন্ধ করার জন্য বহু চেষ্টা হয়। এমনকি তিনি তাঁর পরিচালিত ছবিতে কলা-কুশলী হিসাবে কাকে রাখবেন তাও একটি নির্দিষ্ট জায়গা থেকে চাপ আসে ঠিক করার জন্য। তবুও তিনি চাপের মুখে মাথা না নুইয়ে ছবিটি সমাপ্ত করেন এবং সেন্সর বোর্ডের সাটিফিকেট নিয়ে ছবির মুক্তি ঘটে। তারপরেই এই আজব কান্ড! সংশ্লিষ্ট মহলের বক্তব্য, অনীকবাবুর ছবিতে বর্তমান রাজ্য-রাজনীতির এক প্রবল-প্রভাবশালীর বেশ কিছু কথাকে স্পষ্টভাবে দেখানো হয়েছিল – যা রীতিমত ব্যঙ্গাত্মক ছিল। সেই কারণেই বোধহয় ‘উপর মহল’ থেকে চাপ দিয়ে ছবিটির প্রদর্শন বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টে মামলা হলে বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় আজ নিজের রায়ে জানান, ‘ভবিষ্যতের ভূত; ছবির অবাধ প্রদর্শনে বাধা দিয়েছে রাজ্য সরকার। যে সিনেমাকে সেন্সর বোর্ড প্রদর্শনের অনুমতি দিয়েছে, রাজ্য সরকার কোনও মতেই তার প্রদর্শন বন্ধ করতে পারে না। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ সরকার সেই চেষ্টা করেছে – ফলে প্রযোজক ও বেশকিছু হল মালিকের ক্ষতি হয়েছে। তাই রাজ্য সরকারকে ২০ লক্ষ টাকা জরিমানা দিতে হবে এবং সেই টাকা ছবির প্রযোজক ও ক্ষতিগ্রস্ত হল মালিকদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হবে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!