এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > সরকারি অফিস খুলতেই আবার ছুটি ঘোষণা মমতার, জেনে নিন

সরকারি অফিস খুলতেই আবার ছুটি ঘোষণা মমতার, জেনে নিন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ আসার কারণে বেশ কিছুদিন ধরে রাজ্যে জারি হয়েছে বিধি-নিষেধ‌। আর সেই বিধিনিষেধের আওতায় পড়েছিল সরকারি এবং বেসরকারি অফিসগুলো। মূলত, 15 জুন পর্যন্ত এই বিধি-নিষেধ বহাল ছিল রাজ্যে‌। স্বাভাবিক ভাবেই তারপর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃত্যু সংখ্যা যখন কমতে শুরু করেছে, তখন কিছুটা হলেও শিথিলতা আনবে রাজ্য সরকার, এমনটাই মনে করা হয়েছিল। সেই মত সোমবার নবান্ন থেকে বিধি-নিষেধ পয়লা জুলাই পর্যন্ত জারি থাকলেও বেশ কিছু ক্ষেত্রে শিথিলতার গ্রহণের কথা ঘোষণা করে রাজ্য সরকার।

যার মধ্যে বাজার হাট, শপিংমল নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে খোলার পাশাপাশি সরকারি এবং বেসরকারি অফিস খুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়। মূলত 25 শতাংশ কর্মচারী নিয়ে সরকারি এবং বেসরকারি অফিস চালানো যাবে বলে জানিয়ে দেয় নবান্ন। কিন্তু সোমবার এই ঘোষণা করার পর মঙ্গলবার থেকে অফিস শুরু হতে না হতেই আবার ছুটির ঘোষণা করে দিল রাজ্য সরকার। জানা গেছে, এবার জামাইষষ্ঠী উপলক্ষে বুধবার পূর্ণদিবস ছুটির কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

বস্তুত, এবার জামাইষষ্ঠী ঠিকমত পালন করা যাবে কিনা, তা নিয়ে চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলেন অনেক শ্বশুর, শাশুড়িরা। করোনা ভাইরাসের কারণে বাজার হাট ঠিকমত খোলা না থাকার জন্য রকমারি বাজার করে কিভাবে জামাইয়ের পাতে পরিবেশন করা হবে, তা অনেককেই ভাবাতে শুরু করেছিল। তবে সম্প্রতি বিধিনিষেধ হালকা করে বেশ কিছু ক্ষেত্র খুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি সরকারি অফিস এবং বেসরকারি অফিসগুলো খুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর এই পরিস্থিতিতে যে সমস্ত জামাইরা সরকারি চাকুরির সঙ্গে যুক্ত, তাদের যদি জামাইষষ্ঠীর দিন কর্মস্থলে যেতে হয়, তাহলে তাদেরকে কিভাবে আদর-আপ্যায়ন করবেন শ্বশুরবাড়ির লোকেরা, সেটা নিয়েও গুঞ্জন তৈরি হয়। আর এই পরিস্থিতিতে জামাইষষ্ঠী রাতে ভালোমত পালন করা যায়, তার জন্য পূর্নদিবস ছুটি ঘোষণা করে দিল রাজ্য সরকার। যার থেকে যার ফলে জামাই থেকে শুরু করে শ্বশুর, শাশুড়ি সবার মুখেই হাসি ফুটতে শুরু করেছে।

সূত্রের খবর, আজ নবান্নের পক্ষ একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়। অর্থ দপ্তরের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, আগামীকাল অর্থাৎ জামাইষষ্ঠীর দিন সমস্ত সরকারি দপ্তরে ছুটি থাকবে। অর্থাৎ আগামীকাল অফিস যেতে হবে না সরকারি কর্মচারীদের। যার ফলে চাকুরীজীবী জামাইরা ব্যাপক আনন্দে রয়েছেন। তবে করোনা ভাইরাস থাকার কারণে পরিবহন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ রূপে স্তব্ধ। তাই যাদের দূরে শ্বশুরবাড়ি, তারা কিভাবে এবারের জামাইষষ্ঠী পালন করবেন, সেটা অনেকের কাছেই চিন্তার কারণ। তবে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জামাইষষ্ঠী পালন করবার জন্য সরকারি দপ্তরে পূর্ণ দিবসের ছুটিকে স্বাগত জানাচ্ছেন সরকারি কর্মচারীরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!